.:সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত যে কোন সমস্যার তথ্য প্রদান করুন:.    Back to Home | Search by Id 
Back to Home Page
 


Your IP Address: 18.204.2.231
Your Client IP Address: 18.204.2.231
Your Server IP Address: 18.204.2.231
Your Browser: CCBot/2.0 (https://commoncrawl.org/faq/)

সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত যে কোন সমস্যার তথ্য প্রদান করুন
প্রদানকারীর নাম : *

ফোন নম্বর: *


ই-মেইল : *


স্হান, জেলা : *

বর্ণনা : *

সমস্যার/ক্ষতিগ্রস্থ স্থানের ছবি (যদি থাকে):
(Max size : 2MB)

আরো ছবি দিন


কোড নম্বরটি লিখুন



তথ্য প্রদানে কোনো কারিগরী ত্রুটির সম্মুখীন হলে যোগাযোগ করুন - ৯৫৭৫৫২৭ এই নম্বরে, E-mail : programmer1@rthd.gov.bd

 
ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রাপ্ত সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত তথ্য
Print  
10486. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : dhaka ctg bd
তারিখ ও সময় : 14 Sep, 2021 06:44:09
বর্ণনা :

asslamoalykom wahrahmatollay   সব জায়গায় এখন করোনাভাইরাস পরিস্থিতি শান্ত এবং সব কিছু যথাযথ খোলা অবস্থায় আছে । তারপরও ব্যবসায়ীক লোক সিন্ডিকেট করে প্রতি নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস সামগ্রীর দাম দিন দিন বেড়েই চলেছে । বিশেষ করে মুদির দোকানরা চিনি চা- পাতা তৈল আটা ময়দা চাউল ডাল এককথায় সবকিছুর দাম উর্ধগতি হয়েই চলেছে । তাই আমাদের সরকার দ্রুত সব নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রিক জিনিসের দাম আগের মতো মোটামুটি লাভের করে যেন করে দেন সেজন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি । এখন গাড়ি চলাচল সহ সব কিছু যথাযথ খোলা তারপর ও কেউ দাম দিন দিন চড়া হচছে বাড়তেছে তা খতিয়ে দেখার জন্য সরকার সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি । এবং দ্রুত এসব সিন্ডিকেট চক্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়ে দ্রুত দাম আগের মতো 55হতে 60 টাকা চিনি এবং তেলের দাম লিটারে 105 or110 যা বর্তমানে 160এর ওপর নিচ্ছে , কেন নিচ্ছে কারা দাম বাড়ি য়ে দিচছে তা খতিয়ে দ্রুত সবকিছু র মূল্য নরমেল শ্রমিক লোকদের আগের মতো করে , করে দেওয়া র জন্য সরকার সংশ্লিষ্ট সকলের সুদৃষটি কামনা করছি


জবাব :

See Reply

আপনাকে ধণ্যবাদ। আপনার ্অভিযোগের বিষয়টি এ বিভাগের সাথে সংশ্লিষ্ট নয়। আপনাকে বানিজ্য মন্ত্রনাণলয়ে আপনার সমস্যার বিষয়টি জানানোর ্অনুরোধ করা হল।

10482. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : বরিশাল
তারিখ ও সময় : 13 Sep, 2021 10:17:08
বর্ণনা :

জনাব, 


বিনীত নিবেদন এই যে, আমি বরিশাল জেলার মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার কাজিরহাট থানার একজন স্থায়ী বাসিন্দা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়েনের ছোয়া সারা বাংলাদেশে হলে ও মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার কাজিরহাট থানায় তা পরিলক্ষিত হয়নি। এই থানার কাজিরহাট থেকে খাশেরহাট পর্যন্ত প্রধান একটি সড়ক বিগত ৩০ বছর আগে ইট বসানো হয়েছে। এখন ও ঠিক এখন ও ওই অবস্থায় রয়েছে।  মাঝে মধ্যে শোনা যায় রাস্তাটির জন্য বাজেট পাশ হয়েছে। কিন্তু আবার নাকি কেটে নিয়ে গেছে। এই এলাকায় কোন গর্ভবতী নারী রাস্তা দিয়ে আসা যাওয়া করতে পারে না। তাদেরকে নৌকায় করে নেয়া লাগে। এলাকার শিক্ষাথীদের অনেক পথ পায়ে হেটে যেতে হয়। অত্র এলাকার ২০-৩০ হাজার মানুষের চরম ভোগান্তির কোন শেষ নেই। সব থেকে বেশি খারাপ অবস্থা কাজিরহাট থানার সামনে। 


অতএব, মহোদয়ের কাছে আমার আকুল আবেদন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ছোয়া সব জায়গার মত যেন মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার কাজিরহাট থানায় ও পৌছায় এবং কাজিরহাট থানা থেকে খাশেরহাট বাজার পর্যন্ত প্রধান সড়কটি দ্রুত সংস্কার করে অত্র এলাকার জনগনের ভোগান্তির শেষ করার জন্য মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন জানাচ্ছি। 


 


বিনীত নিবেদক 


অত্র এলাকাবাসির পক্ষে 


মোঃ সাইফুল ইসলাম 


জবাব :

See Reply

জনাব আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার অভিযোগের প্রেক্ষিতে জানানো যাচ্ছে যে, বরিশাল জেলার মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার কাজিরহাট থেকে খাশেরহাট পর্যন্ত সড়কটি বরিশাল সড়ক বিভাগ তথা সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের আওতাধীন নয়।আপনাকে স্খানীয় সরকার বিভাগে/স্খানীয় সরকার প্রকেৌশল ্অধিদপ্তরে সমস্যার বিষয়টি জানানোর ্অনুরোধ করা হল

10456. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : ctg bd
তারিখ ও সময় : 09 Sep, 2021 13:03:17
বর্ণনা :

asslmaoalykom


আমরা Chittagong Raozan tana কোন অবস্থায় কোন ইসলামিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভেতর কোন অঘটন অসম্মান কুরুচিপূর্ণ আচরণ যেন না ঘটে সেজন্য প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষটি কামনা করছি । রাজনৈতিক কোন কর্মকাণ্ডের জন্য প্রতি হিংসা মূলক কোন আচরণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভেতর করা কোন মুসলিম দেশের নাগরিক সহ্য করবে না । আল্লাহ্ পাক ও তা বরদাস্ত করবে না । এবং কোন নেতার সাথে মারামারি বা অহেতুক ঘটনা ঘটেছে Raozan মোহাম্দপুর এরিয়াতে । সে ঘটনা শুধু মাত্র মারামারি তার জের ধরে আমাদের ঐতিহাসিক শিক্ষা প্রতি ষ্ঠানের মাঠে এসে কোন রকম পুত্তলিকা দাহ সহ মিটিং মিছিল করা কোন মুসলিম দেশের নাগরিক সহ্য করবেন না এবং তা কোন মুসলিম দেশের নাগরিক এ ধরনের অসামাজিক অনৈসলামিক কাজকে সমর্থন করতে পারবে না । তাই আমরা শান্তি কামি আওয়ামী সমর্থিত পক্ষ হতে ঐ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভেতর কোন প্রশাসনিক মদদে যেন এ অনৈসলামিক কাজ না ঘটে সেজন্য আগামী 15তারিখ দেওয়া আলটিমেটাম সহ পুত্তলিকা দাহ নামে অসম্মান কুরুচিপূর্ণ আচরণ ঘটাতে না পারেন সেজন্য ঐ মাঠ এবং শিক্ষা প্রতি ষ্ঠান এরিয়া তে 144 ধারা জারি করার আহ্বান জানাচ্ছি । এবং গহিরা হয়ে জামতলা হয়ে কাগতিয়া বাজার দরবার এবং মাদ্রাসা এরিয়াতে Rab মোতায়েন রাখার বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি । যেন দুই পক্ষ মুসলিম, মুসলিম মুসলিম তর্কাতর্কি সংঘর্ষ যেন আর না ঘটে । সেজন্য আমাদের সরকার সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি । এবং Raozan এর বর্তমান প্রশাসনিক প্রধান TNO  কে transfer সহ, প্রশাসনিক  রদবদল করে রাজনৈতিক পরিস্থিতি ঠান্ডা রাখার বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি । কারণ ঐ TNO এর সহযোগিতা পেয়ে কিছু সন্ত্রাস গ্রুপ মিলে এ শান্তি তরিক্বত আর শিক্ষা প্রতি ষ্ঠান কে নিয়ে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছেন । কারণ Raozan এর ইতিহাস পর্যবেক্ষণ করলে দেখা যাই সে 2000 সাল কাগতিয়া মাদ্রাসা এবং তরিক্বতের সাথে সে মহান মোরশেদ গাউছুল আজম থাকা কালিন সময়ে, গ্যাস ব্রিজ সহ অনেক উন্নয়নে আমাদের বর্তমান সরকারের মন্ত্রী সহযোগিতা করেছেন । যিনি আমাদের গাউছের ইহকাল ত্যাগের পর তরিক্বত নিয়ে তরিক্বতের শাখা ভাংচুর সহ , মাহফিল পর্যন্ত করতে এ সমস্যার সৃষ্টি করছেন । তাই মতবিরোধ ভূলে শান্তির পথ বেঁচে নেওয়ার জন্য সকলের প্রতি জোরালো আহ্বান জানাচ্ছি ।


জবাব :

See Reply

আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার ্অভিযোগের বিষয়টি এ বিভাগের সাথে সংশ্লিষ্ট নয়।আপনাকে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে/দপ্তরে আপনার সমস্যার কথা জানানোর ্অনুরোধ করা হল।

10452. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : গাবতলি টু কাউন্দিয়া ইউনিয়ন, ঢাকা
তারিখ ও সময় : 09 Sep, 2021 07:48:10
বর্ণনা :

ঢাকা গাবতলির খুব কাছেই কাউন্দীয়া ইউনিয়ন। এই ইউনিয়নে প্রায় ৩ লক্ষ লোকের বসবাস। এটি ঢাকা ১৪ আসনের অধিভুক্ত।এই ইউনিয়নকে "কাউন্দিয়া দ্বীপ" বলা যায়। এর চতুর্দিক পানি আর পানি। এটি দ্বীপ হওয়াতে এখানে প্রসাশনের পদচারনা কম। মাত্র একটি পুলিশ ফাঁড়ি আছে।এখানে মাদক সেবন,অরাজগতা, অনুন্নত জীবন ব্যবস্থা, অসুস্থ ব্যক্তির অমানবিক কষ্ট,কোন হাসপাতাল নাই, কিছু স্হানিয় ব্যক্তির সিন্ডিকেট ব্যবসা আছে।তার নিজেরা বিচার সালিশ করে অসাধু উপায়ে। বাচ্চারা ভলো স্কুলে যেতে পারে না কারন নৌকা পারাপার বড় বাধা। নৌকা ঘাটের ব্যবসায়ীসহ স্হানীয় কিছু লোক ব্রীজ চায় না। যদি পদ্মা সেতু হতে পারে তবে এই ব্রীজ নয় কেন? আমরা উন্নত জীবনের জন্য এখানে একটি মানবিক ব্রীজ চাই।


জবাব :

See Reply

জনাব, আপনাকে ধন্যবাদ। ব্রীজটি যেখানে নির্মাণের প্রস্তাব করা হয়েছে উক্ত স্থানটি কাউন্দীয়া ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত। ঢাকা সড়ক বিভাগ কর্তৃক উক্ত স্থানে সেতু নির্মাণের কোন পরিকল্পনা নেই। উক্ত স্থানে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের আওতাধীন একটি সেতু নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে। আপনাকে স্খানীয় সরকার বিভাগে সমস্যার বিষয়টি জানানোর ্অনুরোধ করা হল

10434. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : ইউপি: সাহেবরামপুর, কালকিনি, মাদারীপুর
তারিখ ও সময় : 06 Sep, 2021 11:47:20
বর্ণনা :

সাহেবরামপুর ইউনিয়নের ০৫ ও ০৩ নং ওয়ার্ডের মাঝে ৯০০ মিটারের একটা রাস্তা দীর্ঘ কয়েক বছর যাবত দুই এলাকার মানুষজন দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। স্থানীয় চেয়ারম্যান কয়েকবার আশার বানী শোনালেও কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করে নি। শোনাযায় এই রাস্তার টেন্ডার পাস করে চেয়ারম্যান নিজের এলাকার রাস্তা মেরামত করেন। 


জবাব :

See Reply

জনাব, আপনাকে ধন্যবাদ। উল্লেখিত ৯০০.০০ মিটার রাস্তা অত্র বিভাগের অধীনে না হওয়ায় কোন কার্যক্রম গ্রহণ করা সম্ভব হচ্ছে না। উল্লেখ্য যে, দীর্ঘ কয়েক বছর যাবৎ জনদূর্ভোগ সৃষ্টি হচ্ছে এরকম কোন সড়ক মাদারীপুর সড়ক বিভাগের অধীন নাই।আপনাকে স্খানীয় সরকার বিভাগে/স্খানীয় সরকার প্রকেৌশল ্অধিদপ্তরে সমস্যার বিষয়টি জানানোর ্অনুরোধ করা হল

10413. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : dhaka ctg bd
তারিখ ও সময় : 03 Sep, 2021 06:09:38
বর্ণনা :





asslamoalykom

আমাদের দেশের মধ্যে এখনো গার্মেনটস ফেকটরী সমূহে সাপ্তাহিক ছুটি সব গার্মেনটস এ নেই কেন? এবং বেতন কেন 26 তারিখ হতে 3 তারিখের ভেতর আসে না ? কেন এতো শ্রমিকের ওপর অত্যাচার মূলক আচরণ প্রতি নিয়ত ই? তাই অবিলম্বে সরকার যেন এ বিষয়ে তদন্ত নিয়ে পদক্ষেপ নেন সেজন্য বারবার মেইল দিয়ে অবহিত করছি। সবাই শিক্ষিত হোক আর অশিক্ষিত হোক গার্মেনটস ফেকটরী ব্যাংক অফিস আদালত কোন স্থানে কোন কর্মচারীর সাথে অন্য কর্মচারী গালিগালাজ মন্দ কথা বলতে পারবে না । ( এটি সরকারি নিয়ম হতে হবে। এবং যে ব্যাক্তি গার্মেনটস ফেকটরী র কাজে রত থাকা অবস্থায় কোন শ্রমিকের সাথে কোন ভূল ফেলে ও গালিগালাজ মন্দ চিৎকারমূলক কোন অহেতুক আচরণ করতে পারবে না । সে যেই হোক সে লাইন মেন সুপারভাইজার হোক ম্যানেজার হোক একাউন্ট্ ম্যান হোক মালিক পক্ষ হোক কোন কেউ কর্মরত কোন শ্রমিকের ওপর অত্যাচার মূলক গালিগালাজ মূলক আওয়াজ আচরণ বিল্ডিং( যে কানে গার্মেনটস ফেকটরী র শ্রমিক কাজ করে) এর ভেতর করতে পারবেন না । যে গালিগালাজ মূলক, মন্দ আওয়াজ আচরণ বিল্ডিং এর ভেতর করবে সে যেই হোক তাকে সরকারি ভাবে 3মাসের জেল এবং 3000হতে 5000 টাকা জরিমানা করার বিধান বা rule করে প্রতি গার্মেনটস ফেকটরী র management এর কাছে সরকারের পক্ষ হতে পাঠাতে হবে । এ নিয়মটি এ মাস হতে কার্যকর করার জন্য আমাদের প্রধানমন্ত্রী সহ দেশের সরকার সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি । এবং দৈনিক কোন গার্মেনটস ফেকটরী র মালিক পক্ষ সুপারভাইজার বা management এর কর্মকর্তা কে দিয়ে ওভার টাইম প্রতি দিন করতেই হবে না হলে চাকরি থাকবে না চাকরি তে রাখব না এরকম কোন আচরণ করতে পারবেন না । যারা এ ধরনের আচরণ করবে তাদের 3 মাসের বেতন কর্তন করে , অপর পক্ষ কে দিতে হবে । এবং প্রতি শ্রমিক কে সুন্দর মার্জিত শান্তি পূর্ণ আচরণ করার জন্য বিশেষ নিয়ম সব জায়গায় করে দিতে হবে । এবং গার্মেনটস ফেকটরী র নূন্যতম sac কে কমপক্ষে শুরু হতে 13-15 হাজার টাকা বেতন দিয়ে শুরু করতে হবে এবং hsc কে 16-18 হাজার টাকা ডিগ্রি পাশকে 20-22 হাজার টাকা এমাওন্ট করে কাজ শুরু নিয়ম করে দিতে হবে । এবং কোন শ্রমিক এর সাথে হিংসা মূলক কোন আচরণ করতে পারবেন না । চট্টগ্রামস্থ অনেক গার্মেনটস এ দৈনিক 9 ঘন্টা কাজ এবং সপ্তাহে শুক্রবার ছূটি আছে । এবং তাদের প্রয়োজন শিপ ভিত্তিক লোক নিয়োগ করে কাজ চালিয়ে যাচছে। কিন্তু অনেক গার্মেনটস মালিক পক্ষের লোক সকাল 8 টা হতে রাতে র 10 টা 11 টা এমনকিি 2 টা পর্যন্ত সাপ্তাহিক ছুটি ব্যতিত কাজ করে যেতে হচছে যা মানবতা বিরোধী কাজ । যার দরুন যে সব গার্মেনটস এ ধরনের আচরণ চলে সে সব গার্মেনটস সরকারি লোক দিয়ে তদন্ত নিয়ে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করে সকল শ্রমিকদের অনেক দিনের কষ্ট দূর করার জন্য সরকার সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি । হা যদি ওভার টাইম করাতে হয় সপ্তাহে 3দিন করতে পারবেন এবং তা দৈনিক মেইন দায়িত্ব সাথে 2 ঘন্টা এবং এ ওভার টাইম টাকা স্বাভাবিক টাকার ডাবল বেতন স্বরূপ দিতে হবেই । এভাবে যেসব মালিক ওভার টাইম করাবেন তাদের কাছে আজ কালের মধ্যে সরকারি নিয়মের প্রথা যেন BGMEবিজিএমইএ র মাধ্যমে দেশের সর্বত্র গার্মেনটস ফেকটরী তে পৌঁছে , সেজন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি । এর ফলে শ্রমিক দের ওপর অত্যাচার দূরীভূত হবে এবং দেশের মধ্যে শান্তি আসবে। সবাই মুসলিম মুসলিম ভাই ভাই পরিণত হবে। শ্রমিকদের গায়ের গাম ঝরার আগেই কর্মচারীর বেতন দেওয়া র রাসুলের হাদিস পাকের মধ্যে বিষদ আলোচনা রয়েছে । কিন্তু ওনারা মাসের 7/8 তারিখে গিয়ে দিচ্ছে যা অনেক কষ্ট হয়ে শ্রমিকদের চলতে। তাই আমাদের আবেদন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতি, secratary shaheb, kah এ বিষয়ে তদন্ত নিয়ে দ্রুত সব গার্মেনটস এ 26 তারিখ হতে 3 তারিখের ভেতর বেতন পরিশোধের নিয়েম করার আহ্বান জানাচ্ছি । এ মাস হতে তা কার্যকর করার আহ্বান জানাচ্ছি





 






 


 



 





 



 



 


 


 







 










জবাব :

See Reply

আপনার অভিযোগের জন্য ধন্যবাদ। অভিযোগের বিষয়টি সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সাথে সম্পর্কিত নয়। অনুগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়/দপ্তরের সাথে যোগাযোগের অনুরোধ করা হলো।

10355. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : কাউনিয়া রংপুর
তারিখ ও সময় : 24 Aug, 2021 16:04:09
বর্ণনা :

কাউনিয়া উপজেলার বালাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৯নং ওয়ার্ডে roads and highways অফিস। এখানে দায়িত্বরত আরিফ ও তার পরিবার মিলে ইট,  গাছ সহ মুল্যবান সরকারি মালামাল চুরি করতেছে।  তাই তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যাবস্থা নেওয়া হোক। প্রায় ৮-৯ লক্ষ সরকারি টাকা চুরি ও লুট করেছে তারা। তারা এলাকায় অনেক প্রভাবশালী তাই তাদের বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ বা অভিযোগ করতে চায় না ।  এতে সহজেই তাদের চুরি ও লুটপাট চালিয়ে যাচ্ছে ।  তাই তাকে  আইনের আওতায় এনে ব্যাবস্থা গ্রহন করা হোক। 


জবাব :

See Reply

আপনাকে ধন্যবাদ, জনৈক ব্যাক্তি নুর ইসলাম,কাউনিয়া,রংপুর এর অভিযোগের ভিত্তিতে প্রাথমিকভাবে উপ-বিভাগীয় প্রকোশলী,সড়ক উপ-বিভাগ-১,রংপুর ও সংশ্লিষ্ট উপ-সহকারী প্রকৌশলী উক্ত স্থান সরেজমিনে পরিদর্শনকালে আরিফ ও তার পরিবার মিলে গাছসহ মূলিবান মালামাল চুরি করা ও লুট করা সম্পর্কিত অভিযোগের সত্যতা পাননি। তবে গত ০৭/০৯/২০২১ তারিখ উপ-বিভাগীয় প্রকোশলী, উপ-সহকারী প্রকৌশলী ও কাউনিয়া থানার উপ-পরিদর্শক রেজাউল আকন্দসহ অভিযোগের ভিত্তিতে সরেজমিনে পরিদর্শনকালে আরিফ হোসেনের বাসায় আনুমানিক ২৫০ ( দুইশত পঞ্চাশ ) ও তোরাফের বাসায় আনুমানিক ৪৫০০ ( চার হাজার পাচঁশত) ইট পাওয়ার প্রেক্ষিতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তারা ইট ক্রয় করার প্রমাণ দেখান। উল্লেখ্য যে,তিস্তা সাইট চত্বরে একটি মাঝারি আকৃতির জিগনি (জ্বালানী) গাছ পাওয়ার প্রেক্ষিতে কর্তব্যরত নিরাপত্তার কাজে কর্মরত আরিফ হোসেন এতদবিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে,গাছটি ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় তা চলাচলে অসুবিধা সৃষ্টি করেছিল বিধায় গাছটি কেটে তিস্তা সাইট অফিস চত্বরে রেখেছিল মর্মে জানান। এছাড়া প্রাথমিকভাবে তার ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে আনীত প্রায় ৮-৯ লক্ষ সরকারী টাকা চুরি ও লুট সম্পর্কিত অভিযোগেরও সত্যতা পাওয়া যায়নি।
চিঠির কপি: কপি দেখতে ক্লিক করুন

10354. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : KAUNIA RANGPUR
তারিখ ও সময় : 24 Aug, 2021 15:40:43
বর্ণনা :

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলায় একটি রোডস এন্ড হাইওয়ে অফিস অবস্থিত ।  সেখানে রাস্তা মেরামতের জন্য অনেক ইট রাখা হয়েছে কিন্তু সেখানে দায়িত্বরত আরিফ হোসেন ও তার বাবা লুৎফর রহমান  রাতের আধারে অনেক টাকার ইট চুরি  করে বিক্রি করেছে আনুমানিক 2 লক্ষ টাকার ইট ও তাছাড়া অফিসের ভিতরে রুমে থাকা ফ্যান বৈদ্যুতিক ত তার সহ আনুমানিক ১০ লক্ষ টাকার মালামাল রাতের আধারে চুরি করে বিক্রি করেছে।  তারা বাবা ছেলে মিলে অফিসের ভেতরে ও রাস্তার দুপাশের বড় বড় ২০০ টির মতো গাছ রাতের অন্ধকারে বিক্রি করেছে ও এখনো করতেছে।আরিফ ও তার বাবা লুৎফর দুজনই মাদকাসক্ত এলাকায় তাদের অনেক প্রভাব । ভয়ে এলাকার লোকজন তাদের বিরুদ্ধে কিছু বলে না তাই তারা নির্বিঘ্নে অপকর্ম চুরি সকারি সম্পদ লুট করে যাচ্ছে। আরিফ ও লুৎফরের বাসার সাথে বাড়ির  কাছে তোরাফের বাসায় তল্লাশি করলে ৪০০০০ টাকার মত ইট পাওয়া যাবে। তাই দ্রুত তদন্ত করে আরিফ ও তার বাবার বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নেওয়া হোক। তাছাড়া তারা তাদের চুরি চালিয়ে যাবে। 


জবাব :

See Reply

আপনাকে ধন্যবাদ, জনাব জামিনূর ইসলাম,কাউনিয়া,রংপুর এর অভিযোগের ভিত্তিতে প্রাথমিকভাবে উপ-বিভাগীয় প্রকোশলী,সড়ক উপ-বিভাগ-১,রংপুর ও উপ-সহকারী প্রকৌশলী ও সংশ্লিষ্ট শাখা বৃক্ষপালন কর্মকর্তা কর্তৃক তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন অনুযায়ী আনুমানিক ২ (দুই) লক্ষ টাকার ইট ও অফিসে ভিতরের রুমে থাকা বৈদ্যুতিক তারসহ আনুমানিক ১০ (দশ) লক্ষ টাকার মালামাল রাতের আধারে চুরি করে বিক্রি করা সহ অফিস চত্বর ও রাস্তার আশেপাশে আনুমানিক ২০০ টির মত গাছ রাতের আধারে বিক্রির অভিযোগের সত্যতা পাননি। তবে তিস্তা সাইট চত্বরে একটি মাঝারি আকৃতির জিগনি (জ্বালানী) গাছ পাওয়ার প্রেক্ষিতে কর্তব্যরত নিরাপত্তার কাজে কর্মরত আরিফ হোসেন ( কাজ নাই মজুরি নাই খন্ডকালীন নিয়োগকৃত) এতদবিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে,গাছটি ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় তা চলাচলে অসুবিধা সৃষ্টি করেছিল বিধায় গাছটি কেটে তিস্তা সাইট অফিস চত্বরে রেখেছিল মর্মে জানান। । গত ০৭/০৯/২০২১ তারিখ উপ-বিভাগীয় প্রকোশলী, উপ-সহকারী প্রকৌশলী ও কাউনিয়া থানার উপ-পরিদর্শক রেজাউল আকন্দসহ অভিযোগের ভিত্তিতে সরেজমিনে পরিদর্শনকালে আরিফ হোসেনের বাসায় আনুমানিক ২৫০ ( দুইশত পঞ্চাশ ) ও তোরাফের বাসায় আনুমানিক ৪৫০০ ( চার হাজার পাচঁশত) ইট পাওয়ার প্রেক্ষিতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তারা উভয়ই তদন্তে উপস্থিত কর্মকর্তাদের ইট ক্রয়ের করার প্রমাণক প্রদর্শন করেন। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার সাথে আলোচনা ও অনুমতি ব্যতিরেকে উল্লিখিত ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ গাছ কর্তন করে অফিস চত্বরে রাখার প্রেক্ষিতে জনাব আরিফ হোসেনকে ইতোমধ্যে দায়িত্ব হতে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।
চিঠির কপি: কপি দেখতে ক্লিক করুন

10339. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : Munshiganj
তারিখ ও সময় : 21 Aug, 2021 08:14:44
বর্ণনা :

Dear concern, 


From the finishing line of N8 highway to Mawa Chourasta (nearly 1 km road) there are number of speed breakers without highlighted. Those speed breaker are not visible for the vehicles. This two way road one of the busiest road of our country connected with Mawa ferry ghat. Number of accidents happened and also happening. 


I attached a pdf file with this mail as pictures of problem.


জবাব :

See Reply

আপনাকে ধন্যবাদ, অভিযোগে বর্ণিত সড়কাংশ মুন্সীগঞ্জ সড়ক বিভাগের অধীন নহে তথা সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের আওতাধীন নয়। উক্ত সড়কাংশ সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের অধীন সেতু বিভাগের নিয়ন্ত্রণাধীন। আপনাকে সেতু বিভাগে যোগাযোগের ্অনুরোধ করা হল।

10313. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : Rangpur
তারিখ ও সময় : 16 Aug, 2021 18:52:13
বর্ণনা :

 রংপুর বাস ডিপোর ড্রাইভার ডাবল ট্রিপ ও জনগণের জানমালের নিরাপত্তা্র বিষয়ে।


 


জনাব, গত ১৩/০৮/২১ ইং তারিখে রংপুর বাস ডিপোতে এক অস্বাভাবিক বিষয়ের অবতারণা হতে দেখেছি যা জনগণের জানমালের নিরাপত্তার এক বিরাট হুমকি।


জনাব, গত ১৩ ইং তারিখে রংপুর হতে পিরোজপুর গামী বিআরটিসি বাসে দেখতে পেলাম যে ড্রাইভার অই দিন পিরোজপুর-পঞ্চগড় হয়ে সন্ধায় রংপুরে বাস নিয়ে এসে আবার সেই একই ড্রাইভার সেই বাস নিয়ে পিরোজপুরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিবে তখন সেই ড্রাইভারকে এই বিষয়ে কিছু জিজ্ঞেস করতেই সে আক্রমনাত্তক ভঙ্গিতে তেড়ে আসে!! পরপর দুটি ট্রিপ মানে টানা ৬ দিনের বাস চালকের হাতে এতগুলো প্রাণ সত্যিই হুমকির সম্মুখীন।


বাস ডিপো থেকে তার নাম শামীম বলে নিশ্চিত হয়েছি এবং তারা বলছে এক্ষেত্রে তাঁদের কিছু করার নেই! বিশ্রাম ছাড়াই একজন ড্রাইভার ডাবল ট্রিপ ডিউটি করছে এতে আমাদের জানমালের নিরাপত্তার কথা বলতেই ডিপো থেকে বলা হয় এই ড্রাইভের বিরুদ্ধে কেউ কিছু বলনো বা প্রতিবাদ না করার কারনেই এমন একটা স্বেচ্ছাচারী মনোভাব চলে এসেছে!


২০২১ সালে এসে এটা সত্যিই এক বড় বিস্ময় যেখানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কিছুদিন আগেই ৮ ঘণ্টার বেশি ডিউটি না করার কথা বলেছেন, অথচ খোদ বিআরটিসি’র মত সরকারি প্রতিষ্ঠান শামীম নামক এক ড্রাইভারের কাছে অসহায় যেখানে আমাদের জানমালের নিরাপত্তা হুমকির সম্মুখীন।


জবাব :

See Reply

প্রাপ্ত GRS ১০৩১৩ নম্বর অভিযোগের প্রেক্ষিতে রংপুর বাস ডিপোর ইনচার্জ কর্তৃক প্রেরিত ব্যাখ্যার আলোকে জানানো যাচ্ছে যে, ঢাকা মেট্রো-ব-১৫-৬০১৭ রেজিঃ নম্বর এসি বাসটি গত ২২/০৭/২০২১ তারিখ দূর্ঘটনা কবলিত হয়। পরবর্তীতে গত ১১/০৮/২০২১ তারিখ পঞ্চগড়-পিরোজপুর-নৈশ রুটে চালক-সি, জনাব মোঃ শামীম হোসেন মৃধা’কে ডিউটিতে নিয়োজিত করা হলে গত ১৩/০৮/২০২১ তারিখ ডিউটি শেষ করে তার রিলিভার চালক, জনাব মোঃ নাজিদুল ইসলাম এর ডিউটিতে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু চালক-সি, জনাব মোঃ নাজিদুল ইসলাম গত ২২/০৭/২০২১ তারিখ বর্নিত বাস দূর্ঘটনার কারণে তার শারিরীক ও মানসিক অবস্থা স্বাভাবিক না থাকায় তিনি ডিউটিতে উপস্থিত হতে পারেননি, বিধায় পুনরায় পূর্বের চালক, জনাব মোঃ শামীম হোসেন মৃধা এর সম্মতিতে ডিউটি করার জন্য দায়িত্ব প্রদান করা হয়। এক্ষেত্রে রংপুর বাস ডিপো ইনচার্জ কর্তৃক গৃহিত ব্যবস্থা পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, পঞ্চগড়-পিরোজপুর রুটে আসা-যাওয়া, ২ট্রিপে ২জন ভিন্ন চালকের পরিবর্তে ঘটনাক্রমে তিনি একই চালক দিয়ে রুট পরিচালনা করেছেন। রুটটি দীর্ঘতর হওয়ায় বিষয়টি জনস্বার্থে এবং সরকারি স্বার্থে সঠিক হয়নি বলে বিবেচিত হয়। এক্ষনে এরুপ ঘটনা পুনরায় না হওয়ার জন্য প্রধান কার্যালয় হতে রংপুর বাস ডিপোর ইনচার্জকে শোকজ ও পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ প্রধান দপ্তরে প্রক্রিয়াধীন। আগামীতে এরুপ ঘটনা না ঘটে- সেবিষয়ে সু-দৃষ্টি রাখা হবে। বিষয়টি অভিযোগকারীর ই-মেইলে প্রেরণ করা হ’ল।