.:সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত যে কোন সমস্যার তথ্য প্রদান করুন:.    Back to Home | Search by Id 
Back to Home Page
 


Your IP Address: 18.232.51.69
Your Client IP Address: 18.232.51.69
Your Server IP Address: 18.232.51.69
Your Browser: CCBot/2.0 (https://commoncrawl.org/faq/)

সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত যে কোন সমস্যার তথ্য প্রদান করুন
প্রদানকারীর নাম : *

ফোন নম্বর: *


ই-মেইল : *


স্হান, জেলা : *

বর্ণনা : *

সমস্যার/ক্ষতিগ্রস্থ স্থানের ছবি (যদি থাকে):
(Max size : 2MB)

আরো ছবি দিন


কোড নম্বরটি লিখুন



তথ্য প্রদানে কোনো কারিগরী ত্রুটির সম্মুখীন হলে যোগাযোগ করুন - ৯৫৭৫৫২৭ এই নম্বরে, E-mail : programmer1@rthd.gov.bd

 
ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রাপ্ত সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত তথ্য
Print  
9688. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : Dhaka
তারিখ ও সময় : 07 Jan, 2020 06:41:49
বর্ণনা :

সিটি কর্পোরেশনকে বিমানবন্দর সড়কে এলইডি লাইটের কথা বলে আসছি অনেক আগে থেক। বিমানবন্দর সড়ক আর তার প্রধান সড়কের আশে পাশে পর্যাপ্ত এলইডি লাইট গুলো দিলে অপরাধ অনেক কমে যেত। সিটি কর্পোরশেনকে অভিযোগ দিলে তারা বলে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরকে বলেন। সিটি কর্পোরেশন আছে শুধু গুলশান বনানি বাড়িধারা নিয়ে। আর আমি বুঝিনা শহরের মাঝের একটা ভিআইপি সড়ক এখন পর্যন্ত কেন সিটি কর্পোরেশন নিচ্ছেনা কেন। যার কারনে সমন্যয়ের অভাব হয়ে পড়ে। কাজে আসে ধির গতি। সিটি কর্পোরেশনের কিছু সেবার অভাব হচ্ছে এই এলকার মানুষদের। এই সমস্ত এলাকার মানুষ অভিভাবহিন হয়ে পড়ছে। অনুরোধ থাকবে আপনি অবশ্যই এই বেপারটী নিয়ে খুব দ্রুত কাজ করবেন।


জবাব :

See Reply

সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের আওতাধীন বিমানবন্দর হতে খিলক্ষেত হয়ে বনানী ফ্লাইওভার পর্যন্ত মহাসড়কটিতে রোড মিডিয়ানের ‍উপর এলইডি লাইট দ্বারা আলোকিত করা হয়েছে। এছাড়া সড়কের উভয়পার্শ্বে ফুটপাত বরাবর পথচারীদের চলাচলের সুবিধার্থে গার্ডেন লাইট স্থাপন করা হয়েছে। কিন্তু খিলক্ষেত হতে লা মেরিডিয়ান হোটেল পর্যন্ত বিদ্যমান সার্ভিস লেনে ওয়াসা কর্তৃক স্যুয়ারেজ লাইন বসানোর সময়ে অনেক তার কাটা গিয়েছে যার ফলে উক্ত অংশে গার্ডেন লাইটগুলি বন্ধ হয়ে গেছে। বর্তমানে উক্ত স্থানে নতুন তার বসানোর কাজ চলছে। অতি শীঘ্রই গার্ডেন লাইট সমুহ সচল হয়ে ‍উঠবে। তাছাড়া বিদ্যমান কিছু কিছু এলইডি লাইট এর ক্ষমতা কমে গিয়েছে যা প্রতিস্থাপনের জন্য একটি প্রকল্প অনুমোদনের পর্যায়ে রয়েছে। আগামী ২/৩ মাসের মধ্যে উক্ত এলইডি লাইট গুলি প্রতিস্থাপন করা হবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে মুল সড়ক সহ আশেপাশের সওজ এর আওতাধীন সকল সড়ক আলোকিত হবে।


9687. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : চাঁদপুর সদর
তারিখ ও সময় : 07 Jan, 2020 04:06:55
বর্ণনা :

আসসালামুআলাইকুম স্যার ডাইভিং লাইসেন্স এর ডেলিভারি রিছিট দেওয়ার পর আমার ডাইভিং লাইসেন্স দেয় নাই অন লাইনে দেখলাম আমার ডাইভিং লাইসেন্স এখানো পেনডিং আচে তাই মন্ত্রী মহোদয় এর কাছে বিনীত অনুরোধ এই যে ডাইভিং লাইসেন্স এর কারনে আমার সৌদি আরব যাওয়া বিলম্বিত হইতেছে এবং সৌদি এমব্যাসি ডাইভিং লাইসেন্স ছাড়া ভিসা স্টাম্পিং করতে চে না তাই আমার ডাইভিং লাইসেন্স পাওয়ার ব্যাপারে আপনাদের সাহায্যে কামনা করি


কর


জবাব :

See Reply

ড্রাইভিং লাইসেন্স কার্ড এর সংকট থাকার দরুন বর্তমানে ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রিন্ট ও সরবরাহের ক্ষেত্রে কার্যক্রমে কিছুটা বিলম্ব হচ্ছে। এক্ষেত্রে “delivery slip”-এ উল্লিখিত delivery ডেট বাড়িয়ে নেয়া যেতে পারে।

 

যদিও জরুরী ভিত্তিতে লাইসেন্স কার্ড প্রাপ্তির আবেদন গ্রহণে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে তথাপি বিশেষ ক্ষেত্রে বিশেষ প্রয়োজনে (সৌদি ভিসা/বিদেশ গমন/চাকুরীর আবেদন) সুনির্দিষ্ট কারণ এবং প্রমানকসহ (কপি সংযুক্ত) সংশ্লিষ্ট  লাইসেন্সিং কর্তৃপক্ষ (অর্থাৎ  যে বিআরটিএ অফিসে লাইসেন্স করেছেন) এর নিকট নির্ধারিত ফর্মে আবেদন দাখিল করতে হবে। ফরম ওই বিআরটিএ অফিসেই পাওয়া যাবে। দাখিলকৃত আবেদন যথাযথভাবে যাচাই বাছাই করতঃ ঐ অফিস ব্যবস্থা গ্রহণ করবে এবং ড্রাইভিং লাইসেন্স কার্ড সরবরাহ করবে।

 


9686. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : ঢাকা
তারিখ ও সময় : 04 Jan, 2020 20:18:45
বর্ণনা :

বাংলাদেশ সরকারের  মোটরসাইকেলের সিসি লিমিট বাডানোর কোনো পরিকল্পনা আছে কি না? জানালে   খুব উপকার হইত। 


জবাব :

See Reply

আপনার অভিযোগের জন্য ধন্যবাদ।

আপাতত মোটরসাইকেলের সিসি লিমিট বাডানোর কোনো পরিকল্পনা নেই।

ধন্যবাদ


9685. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : Faridgonj, Chandpur
তারিখ ও সময় : 04 Jan, 2020 08:51:48
বর্ণনা :

চাঁদপুর জেলার অন্তর্গত ফরিদগঞ্জ-রুপসা সড়কের অবস্থা দিন দিন অবনতির দিকে যাচ্ছে। এই সড়কে প্রতিদিন কয়েক হাজার মানুষ যাতায়াত করে। খাজুরিয়া বা রুপসা হতে চাঁদপুর যাওয়ার জন্য এটি একমাত্র সড়ক। একজন মুমুর্ষ রোগীকে এই পথে হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া মানে তার মৃত্যু টেনে আনা। অতি শীঘ্রই কোনো ব্যবস্থা না নেয়া হলে, দিন দিন দুর্ঘটনার হার বাড়বে।


 


------ফরিগঞ্জবাসীর পক্ষে


 


জবাব :

See Reply

চাঁদপুর জেলার অন্তর্গত ফরিদপুর-রুপসা সড়কটি সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের আওতাধীন নয়। আপনার অভিযোগের জন্য ধন্যবাদ।


9684. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : Jashore
তারিখ ও সময় : 04 Jan, 2020 02:38:15
বর্ণনা :

অতিরিক্ত ভাড়া গ্রহণ। মনিরামপুর থেকে নাটোর ভাড়া ৪০০/-। কাউন্টার ফোন নং- 01915202957


জবাব :

See Reply

অভিযোগ সুস্পষ্ট/সুনির্দিষ্ট নয়। বাস নম্বর ও চালক এবং কন্ডাক্টরের নাম এমনকি সময় উল্লেখ করা হয়নি। পুনরায় সুস্পষ্টভাবে অভিযোগ প্রদানের জন্য অনুরোধ করা হ’ল।


9682. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : ভৈরব,কিশোরগঞ্জ ও আশুগঞ্জ,ব্রান্মনবাড়ীয়া
তারিখ ও সময় : 02 Jan, 2020 09:29:26
বর্ণনা :

ঢাকা সিলেট মহাসড়কের সৈয়দ নজরুল ইসলাম সেতুতে ফাস্ট ট্র্যাক সংযোজন করা হলেও তা চালু না ম্যানুয়ালি পরিচালনা করা হচ্ছে,এ বিষয়ে ঐ ব্রীজের টোল আদায়কারীদের নিকট প্রতিকার চাইলেও তাঁরা কোন ব্যাবস্হা গ্রহণ করেনি। অবিলম্বে ফাস্ট ট্র্যাক চালু করার পদক্ষেপ নেওয়ার আবেদন জানাচ্ছি। 


জবাব :

See Reply

২০ নভেম্বর, ২০১৯ হতে ফাস্ট ট্র্যাক চালু আছে। প্রতিদিন ফাস্ট ট্র্যাক দিয়ে যানবাহান পারাপার হচ্ছে । ফাস্ট ট্র্যাক ব্যাবহার করার জন্য প্রতিটি গাড়ি  একটি প্রিপেইড একাউন্টের মাধ্যমে টোল সফটওয়্যারে রেজিষ্ট্রেশন করাতে হবে। যাতে করে সংশ্লিষ্ট একাউন্টে টাকা থাকলে টোল্পলাজা অতিক্রমের সময় গাড়ির আরএফআইডি ট্যাগ পড়ে নির্ধারিত টাকা কেটে নিতে পারে। এজন্য ডাচ বাংলা ব্যাংকের রকেট সার্ভিসের সাথে যুক্ত হতে হবে। গাড়ীর সত্ত্বাধিকারীর এনআইডি এর কপি, গাড়ির রেজিষ্ট্রেশন নাম্বার এবং গাড়ির চেসিস নাম্বার নিয়ে ডাচ বাংলা ব্যাংকের সাথে যোগাযোগ করলে ব্যাংক ই ব্যাবস্থা করে দিবে। ডাচ বাংলা ব্যাংকের কর্মকর্তার নাম্বারঃ মিঃ সাজ্জাদ- ০১৯১৬১০০৯৩৮। 


9681. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : ঢাকা
তারিখ ও সময় : 01 Jan, 2020 17:04:10
বর্ণনা : সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রকল্প অফিসগুলোতে ই-নথি চালুকরণ প্রসঙ্গে।


বর্তমান সময়ে সরকারী প্রতিষ্ঠানগুলোতে ই-নথি চালুকরণ একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ। এর মাধ্যমে দাপ্তরিক কাজকর্ম অত্যন্ত সহজ, সাবলীল এবং দ্রুততার সাথে সম্পন্ন করা যায়। নিঃসন্দেহে ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণে ই-নথির ব্যবহার বর্তমান সরকারের একটি সাফল্যমণ্ডিত পদক্ষেপ। এর মাধ্যমে সহজে পত্র ও নথি আদান-প্রদান করা যায় এবং এদের অবস্থান জানা যায়। একইসাথে ক্লাউড সার্ভারে দীর্ঘদিন তথ্যাদি ও পত্রাদি সংরক্ষণের সুবিধাও বিদ্যমান। যে কোন প্রয়োজনে যে কোন জায়গা থেকে এটি ব্যবহারযোগ্য। বর্তমানে মোবাইল অ্যাপস এর মাধ্যমে এর ব্যবহারও প্রণিধানযোগ্য।

সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রকল্প অফিসগুলোতেও অতি দ্রুত ই-নথি চালুকরণ খুবই জরুরি। ই-নথির মাধ্যমে প্রকল্প অফিসগুলো সহজেই দৈনন্দিন দাপ্তরিক কাজগুলো সম্পন্ন করতে পারবে। প্রকল্পে কর্মরত কর্মকর্তাদের ফিল্ড ভিজিট বেশি থাকায় দাপ্তরিক কাজে অধিকাংশ ক্ষেত্রে ধীরতা পরিলক্ষিত হয়। ই-নথি সুবিধা থাকলে যে কোন স্থান থেকেই দাপ্তরিক প্রক্রিয়া অনুযায়ী কাজ অল্প সময়ে দ্রুত সম্পন্ন করা যাবে।

এছাড়া সওজ প্রধান কার্যালয়ে ই-নথি চালু করায় প্রকল্প অফিসগুলো থেকে দৈনন্দিন পত্র আদান-প্রদানে সময়ক্ষেপণ বেশি হচ্ছে। উপরন্তু প্রধান কার্যালয়সহ সরকারী অন্য দপ্তরগুলোতে ই-নথি এবং প্রকল্প অফিসগুলোতে কাগুজে পত্র প্রেরণ-এই দুই ধরনের প্রক্রিয়া চালু থাকায় বেশ জটিলতা সৃষ্টি হচ্ছে এবং যোগাযোগের ক্ষেত্রে অসামঞ্জ্যতা পরিলক্ষিত হচ্ছে। এমতাবস্থায় সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রকল্প অফিসগুলোতে ই-নথি প্রক্রিয়া দ্রুত চালুকরণে কোন পদক্ষেপ নেয়া হবে কিনা? এবং কবে নাগাদ সওজ প্রকল্প অফিসগুলোতে ই-নথি ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড বিতরণ করা হবে?
জবাব :

See Reply

ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে ই-নথির ব্যবহার বর্তমান সরকারের একটি সাফল্যমন্ডিত পদক্ষেপ। ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানের লক্ষ্যে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের তত্ত্বাবধানে এবং একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রামের সহযোগিতায় উপজেলা হতে মন্ত্রণালয় পর্যন্ত বিভিন্ন সরকারি অফিসে ই-নথি ব্যবস্থাপনা বাস্তবায়ন শুরু হয়েছে। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের হেড অফিসে ই-নথি কার্যক্রম চালু হয়েছে। এই প্রক্রিয়াটি চলমান রয়েছে । ইতিমধ্যে ঢাকা জোন, ময়মনসিংহ জোন এর প্রশিক্ষণ সমাপ্ত হয়েছে এবং সিলেট জোন এর প্রশিক্ষণ আগামী ১৬ জানুয়ারি ২০২০ । ১৪ জানুযারি সকল প্রকল্পে ই-নথির ডিজিটাল নথি নম্বরের উপর একটি সভা অনুষ্ঠিত হবে। প্রক্রিয়াটি চলমান এবং পর্যায়ক্রমে সকল প্রকল্প, সকল জোন ই-নথির আওতায় আনা হবে। 


9680. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : খিলক্ষেত, ঢাকা
তারিখ ও সময় : 30 Dec, 2019 09:39:31
বর্ণনা :

ঢাকা বিমানবন্দর থেকে খিলক্ষেত হয়ে বনানি ফ্লাই ওভার পর্যন্ত প্রধান সড়কটিকে সিটি কর্পোরেশনের কাছে হস্তান্তর করুন। নতুবা আমরা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় টয়লেট, রাস্তায় এলইডি বাতি সহ অন্য কোন সুবিধা নিতে পারছিনা। যে কোন সেবা নিয়া সিটি কর্পোরেশনকে কপ্লেইন করলেই ওরা রোডস এন্ড হাই ওয়ের দোহাই দেয়। এমতাবস্থায় আমরা অভিবাবকহীন হয়ে পড়েছি। এবং বছরের পর বছর এভাবেই চলছে। জনগনের কথা একটু চিন্তা করে মাননীয় মন্ত্রিকে বেপারটা দেখার জন্য অনুরোধ করছি।


জবাব :

See Reply

বনানী-টঙ্গী-জয়দেবপুর সড়ক (ঢাকা-ময়মনসিংহ) সড়ক জনপথ অধিদপ্তরের অধিগ্রহনকৃত নিজস্ব ভুমির উপর দিয়ে ১৯৬৫ সালে নির্মাণ করা হয়েছে এবং সড়কটি উত্তরোত্তর সম্প্রসারণসহ নিয়মিত মেরামত ও রক্ষনাবেক্ষনের মাধ্যমে সড়কটির পেভমেন্ট মসৃন ও নিরাপদ নির্বিঘ্ন যান চলাচল নিশ্চিত করা হচ্ছে। ঢাকা শহরের অন্যান্য সড়কে প্রায় বড় বড় পটহোলস দেখা গেলেও উক্ত সড়কে কখনো কোন পটহোলস থাকে না। সৌন্দর্য্য বর্ধনের জন্য সড়কের দুই পার্শ্বে দৃষ্টি নন্দন বৃক্ষরাজি ও ফুলের গাছ দ্বারা সুসজ্জিত করা হয়েছে এবং প্রতিনিয়ত সৌন্দর্য্য বৃদ্ধির কাজ চলমান রয়েছে। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের আওতাধীন বিমানবন্দর হতে খিলক্ষেত হয়ে বনানী ফ্লাইওভার পর্যন্ত মহাসড়কটিতে রোড মিডিয়ানের ‍উপর এলইডি লাইট দ্বারা আলোকিত করা হয়েছে। এছাড়া সড়কের উভয়পার্শ্বে ফুটপাত বরাবর পথচারীদের চলাচলের সুবিধার্থে গার্ডেন লাইট স্থাপন করা হয়েছে। কিন্তু খিলক্ষেত হতে লা মেরিডিয়ান হোটেল পর্যন্ত বিদ্যমান সার্ভিস লেনে ওয়াসা কর্তৃক স্যুয়ারেজ লাইন বসানোর সময়ে অনেক তার কাটা গিয়েছে যার ফলে উক্ত অংশে গার্ডেন লাইটগুলি বন্ধ হয়ে গেছে। বর্তমানে উক্ত স্থানে নতুন তার বসানোর কাজ চলছে। অতি শীঘ্রই গার্ডেন লাইট সমুহ সচল হয়ে ‍উঠবে। উক্ত বিমানবন্দর সড়কে একটি সৌন্দর্যবর্ধন প্রকল্প গ্রহন করা হয়েছে যা অনুমোদনের জন্য মন্ত্রনালয়ে প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। প্রকল্পটি অনুমোদন হলে সড়কটির পাশে বাস-বে অংশে অত্যাধুনিক যাত্রী ছাউনী, টয়লেট, বিশুদ্ধ সুপেয় পানি ও Wi-Fiসুবিধার ব্যবস্থা হবে।সড়কটির সৌন্দর্য্য বর্ধণসহ প্রকল্পের কাজ শেষ হলে সড়কটি দেশের এক দৃষ্টান্তমূলক জাতীয় মহাসড়কে উন্নীত হবে।

এছাড়াসড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের অধিগ্রহনকৃত ভুমির উপর নির্মিত এবং নিয়মিত রক্ষনাবেক্ষনের মাধ্যমে সড়কটি সার্বক্ষনিকভাবে সুষ্ঠ ও নিরাপদ যান চলাচলের উপযোগী থাকায়সড়কটির নিয়ন্ত্রন ও রক্ষনাবেক্ষনের দায়িত্ব অন্য কোন সংস্থার হাতে হস্তান্তর করার সুযোগ নেই। 


9679. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : কুমিল্লা
তারিখ ও সময় : 29 Dec, 2019 14:44:18
বর্ণনা :

বাংলাদেশের কোন মহাসড়ক প্রথম ৪ লেন করা হয়।


 


জবাব :

See Reply

প্রদানকারী কর্তৃক চাহিত তথ্যাদি জিআরএস এর সহিত সংশ্লিষ্ট নয়। প্রদানকারী কর্তৃক উক্ত তথ্যাদি ‘তথ্য অধিকার আইন ২০০৯’ এর ধারা ৮ মোতাবেক আবেদন করে তথ্য প্রাপ্তির জন্য ‘আরটিআই, ফোকাল পয়েন্ট কর্মকর্তা, সওজ’ এর নিকট আবেদন করতে পারেন।


9678. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : কাঠালবাড়ী ঘাট,মাদারীপুর
তারিখ ও সময় : 27 Dec, 2019 08:56:07
বর্ণনা :

বিআরটিসি কাঠালবাড়ী থেকে বরিশাল এসি বাস টিকিট এর মাধ্যমো সিটিং সার্ভিস  কিন্তু ২৭/১২/২০১৯ইং তারিখ সিটিং সার্ভিস এরবদলে চিটিং সার্ভিসসাভিস দিয়ে আসছে। টিকিট ছারা যাত্রী এবং দারিয়ে যাত্রী১৫ থেকে ২০ জজন নিয়েছে এটা কি বিআরটিসি বাস এর যাত্রী সেবা?? যাত্রীর সেবার মানক্ষুন করেছে চালক এবং হেলপার দায়ী।সরকারি রাজস্ব  ফাকি এবং সেবার সিটিং বলে লোকাল এর থেকে বাজে সাভিস। (স্থির চিত্র সংবলিত)


জবাব :

See Reply

দায়েরকৃত অভিযোগে বাস নম্বর, চালকের নাম ও সময় উল্লেখ না থাকায় দোষী ব্যক্তিকে সনাক্ত করা যাচ্ছে না। তবে ইতিমধ্যেই সম্মানীত যাত্রী সাধারণের সেবার মানবৃদ্ধিকরণসহ সকল চালককে অভিযোগে উল্লেখিত বিষয়গুলি থেকে বিরত থেকে সু-শৃঙ্খলভাবে বাস পরিচালনা করার জন্য সতর্ক করে কঠোর নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।