.:সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত যে কোন সমস্যার তথ্য প্রদান করুন:.    Back to Home | Search by Id 
Back to Home Page
 


Your IP Address: 18.232.51.69
Your Client IP Address: 18.232.51.69
Your Server IP Address: 18.232.51.69
Your Browser: CCBot/2.0 (https://commoncrawl.org/faq/)

সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত যে কোন সমস্যার তথ্য প্রদান করুন
প্রদানকারীর নাম : *

ফোন নম্বর: *


ই-মেইল : *


স্হান, জেলা : *

বর্ণনা : *

সমস্যার/ক্ষতিগ্রস্থ স্থানের ছবি (যদি থাকে):
(Max size : 2MB)

আরো ছবি দিন


কোড নম্বরটি লিখুন



তথ্য প্রদানে কোনো কারিগরী ত্রুটির সম্মুখীন হলে যোগাযোগ করুন - ৯৫৭৫৫২৭ এই নম্বরে, E-mail : programmer1@rthd.gov.bd

 
ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রাপ্ত সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত তথ্য
Print  
9728. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : GAZIPUR
তারিখ ও সময় : 22 Feb, 2020 12:39:18
বর্ণনা :

Dear Sir,


This is to inform you that, regarding 3-wheelers CNG AUTO on the highway (Gazipur Bipas to Narayangong gawsia). We are all know that, the Gazipur Bipas to Narayangong gawsia highway is very busy. Always up-down this way big big cover van, truck, bus and others. And this highway is one way.I think this is illegel and unsafe for permit the 3-wheelers CNG AUTO on the highway.



So you are cordially requested to ban the 3-wheelers CNG AUTO from highway (Gazipur Bipas to Narayangong gawsia)



Thanks


জবাব :

See Reply

আপনার অভিযোগ দাখিলের জন্য ধন্যবাদ

 

আপনার অভিযোগের  বিষয়ে সংশ্লিষ্ট  উপপরিচালক বরাবর অভিযোগ পত্রটি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য  প্রেরণ করা হয়েছে। 


9727. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : লালমাই হতে লাকসাম বাজারেরউপর উড়াল সড়ক নির্মাণের দাবি
তারিখ ও সময় : 20 Feb, 2020 16:43:02
বর্ণনা :

কুমিল্লা-নোয়াখালী মহাসড়কের  লাকসাম বাজার এবং বাগমারা বাজারের  উপর দুটি উড়াল সড়ক নির্মাণ চাই।  গুরুত্বপূর্ণ  কুমিল্লা- নোয়াখালী মহাসড়কের     লাকসাম বাজারের উপর এবং বাগমারা বাজারের উপর দিয়ে উড়াল সড়ক নির্মাণ অতীব জরুরী হয়ে  পড়ে।  নিরাপদ এবং দ্রুত যাতায়াত নিশ্চিত করতে উল্লিখিত দুটি বাজারের উপর দিয়ে দুটি উড়াল সড়ক নির্মাণ প্রকল্প গ্রহণের জন্য মাননীয় সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রী মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন    জানাই।                        


জবাব :

See Reply

জবাব,

বর্তমানে এ ধরণের কোন প্রকল্প কুমিল্লা সড়ক বিভাগের অধীনে নেই। ভবিষ্যতে জনগণ/যানবাহনের চাহিদা বিবেচনা করে প্রকল্প গ্রহণ করা যেতে পারে। তবে ‘‘কুমিল্লা(টমছমব্রীজ)-নোয়াখালী(বেগমগঞ্জ) আঞ্চলিক মহাসড়ক ৪-লেনে উন্নীতকরণ” প্রকল্পের আওতায় লাকসাম বাজার অংশে (ফয়েজগঞ্জ হতে গাজীরমুড়া) ৫.৫০ কিলোমিটার বিদ্যমান এ্যালাইনমেন্ট ২-লেন মহাসড়ক (যার মধ্যে ৪.৮৪ কিলোমিটার রিজিড পেভমেন্ট) এবং বিকল্প এ্যালাইনমেন্ট ২-লেন নতুন মহাসড়ক নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।


9726. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : sylhet
তারিখ ও সময় : 20 Feb, 2020 09:55:43
বর্ণনা :

Dear sir,


my name is nazhat al hafiz and live in united kingdom. we have a charity Foundation called Bangladesh Awami Foundation ltd . we need local representatives in Bangladesh specially for sylhet. can you please contact me asap .


জবাব :

See Reply

This section is not related to this topic. Thank you.


9725. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : নারায়ণগঞ্জ
তারিখ ও সময় : 17 Feb, 2020 07:22:46
বর্ণনা : জনাব,

শীতল পরিবহন নারায়ণগঞ্জ-ঢাকা রুটে যাত্রীদের তাদের পরিবহন সেবা দিয়ে থাকে। এই পরিবহন শুরু থেকেই “সিটিং সার্ভিস” সেবা প্রদান করে আসছে। এবং এর বাস ভাড়া এই রুটের যে কোন পরিবহন যানের মধ্যে সবচেয়ে বেশি। আমি গত ১৫/০২/২০২০ইং তারিখে আনুমানিক বিকাল ৩.২০ টায় শীতল পরিবহনের “বাস নং-ঢাকা মেট্রো-ব ১১-৯৭১২” এর মাধ্যমে নারায়ণগঞ্জ (চাষাঢ়া কাউন্টার) থেকে ঢাকাতে রওনা হই। উক্ত কাউন্টার থেকে বাসের সবগুলো সিটে যাত্রী পূর্ণ হয়ে যায়। কিন্তু তারপরেও পথিমধ্যে উক্ত বাসের সুপারভাইজার যাত্রী তোলে। বাসের কোন সিট খালি না থাকায় যাত্রীদের দাঁড় করিয়ে নেয়া হয়। সিটিং সার্ভিস হলেও এইভাবে লোকাল বাসের মত দাঁড় করিয়ে যাত্রী নেয়া সঠিক নয়। এতে আইন লংঘিত হচ্ছে এবং যাত্রী সেবার মান নিম্নমুখী হচ্ছে। একজন সাধারণ যাত্রী হিসেবে সবচেয়ে বেশি ভাড়া প্রদান করেও ন্যুনতম কাংখিত সেবা পাওয়া যাচ্ছে না।

সম্প্রতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সড়ক পরিবহনে যাত্রী সেবার বিষয়ে কঠোর নজরদারির কথা ব্যক্ত করেছেন। অতএব, শীতল পরিবহনে সিটিং সার্ভিসের নামে সাধারণ লোকাল পরিবহনের মত সিটের অতিরিক্ত যাত্রী তোলার মত অনিয়মের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে কি না? মহোদয় সমীপে একজন সাধারণ যাত্রী হিসেবে অভিযোগ দাখিল করলাম এবং প্রশাসনিক/ দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি গ্রহনে এর প্রতিকারের মাধ্যমে যাত্রী সেবার মান বৃদ্ধির নিবেদন করছি।

সংযুক্তিঃ ১৫/০২/২০২০ইং তারিখের দাঁড়িয়ে যাত্রী নেয়ার ছবি সংযুক্ত করা হল।
জবাব :

See Reply

জবাব:

আপনার অভিযোগ দাখিলের জন্য ধন্যবাদ

আপনার অভিযোগের  বিষয়ে সংশ্লিষ্ট উপপরিচালক বরাবর অভিযোগ পত্রটি প্রেরণ করা হয়েছে। একইসাথে সহকারী পরিচালক নারায়ণগঞ্জ বিআরআরটিএ-কে বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। 


9723. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : Bogra, Dhaka,
তারিখ ও সময় : 11 Feb, 2020 04:52:11
বর্ণনা :

তারিখঃ ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০।


 


মহোদয়,


আসসালামু আলাইকুম


আমি গত ০৯ জানুয়ারী ২০২০ তারিখ ০৭০০ ঘটিকায় দিনাজপুর মেডিক্যাল কলেজে গমনের প্রাক্কালে বগুড়া হতে দিনাজপুরগামী বিআরটিসি বাস কাউন্টার হতে ০৪টি টিকেট ক্রয় করি। যথাসময়ে বাস কাউন্টার আগমন করার পর দেখি বাসটি সিটি সার্ভিসের যার ফলে লাগেজ বক্স নেই বলেল চলে। পরবর্তীতে বাসের ভিতরে সকল যাত্রীদের (মেডিক্যাল কলেজের ছাত্র/ছাত্রীসহ) লাগেজ ও মেডিক্যালের প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রীর ব্যাগ রাখা হয়। দিনাজপুরের উদ্দেশ্যে বাসটি গমন করার পর কন্টাক্টর (নাম জানা নেই) ও হেলপার মিঃ বাবু নামে ০২জন ব্যক্তি যাত্রীদের লাগেজ/ব্যাগ নিয়ে হিনমন্যতা প্রকাশ করে বলে যে, এগুলো কুরিয়ার সার্ভিসে না দিয়ে বাসে কেন নিয়েছেন। এছাড়াও তারা ব্যাগগুলো টেনে হিছরে পিছেন জটলা করে রাখে। এ বিষয়ে কথা বললে তারা অন্য বাসে যেতে বলে। পরবর্তীতে তারা দিনাজপুর যেতে রাস্তায় কমপক্ষে ৩০/৪০ বার থামিয়ে লোক দাড়িয়ে গাধাগাদি করে লোকাল সার্ভিসের চেয়ে নিম্নমানের সার্ভিস প্রদান করতে থাকে এ বিষয়ে প্রতিবাদ করতে গেলে কন্টাক্টর (নাম জানা নেই) ও হেলপার মিঃ বাবু  আমাদেরকে বাস হতে নেমে দিতে উদ্দত হয় এবং বলে যে, এইটা বিআরটিসি বাস আমরা যেভাবে ইচ্ছা চালাবো কেউ কিছু করতে পারবে না। যান যেখানে ইচ্ছা রিপোট দেন। আমাদের কিছুই করতে পারবেন না। আমি মোবাইল ফোনে ছবি/ভিডিও করতে চাইলে তারা আমাকে আমার পরিবারের সামনে শারিরিক ভাবে আঘাত করতে উদ্ধত হয় এবং আমার মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয় (নামার সময় মোবাইল ফিরেয়ে দেয়। তারা বলে এর চেয়ে আমাদের অনেক দামী ফোন ও টাকা পয়সা কি করতে পারবেন যান, পারলে কিছু করে দেখায়েন।


 


মহোদয়, বিআরটিসি বাসের গুণগত মান ধরে রাখার জন্য এ বিষয়ে আপনার প্রয়োজনীয় সদয় দৃষ্টি সহ এহেন অস্যৎ কর্মচারীদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক/ দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি গ্রহনে সদয় আঞা হয়।


 


 


বাংলাদেশের সাধারণ জনগনের পক্ষ হতে


বিনীত নিবেদক


 


মোঃ সুজন মাহমুদ


মিরপুর-১৩, ঢাকা-১২১৬


০১৭৫৬-১৭০৭৩৩


জবাব :

See Reply

আপনাকে ধন্যবাদ। অভিযোগকারীর সাথে ম্যানেজার (অপাঃ) বগুড়া বাস ডিপো মোবাইল ফোনে কথা বলেছেন। অভিযোগকারী জানান যে, উক্ত রুটে নিয়োজিত কন্ডাক্টর ও হেলপার কতিপয় যাত্রীর সাথে অসৎ আচরণ করেন। যা অত্যন্ত দুঃখজনক। অভিযোগকারী উক্ত হেলপার ও কন্ডাক্টরকে ডিউটিতে নিয়োজিত না করার জন্য মতামত দেন। মতামতের ভিত্তিতে উল্লেখিত হেলপার ও কন্ডাক্টর এর ডিউটি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। অভিযোগকারীর বিষয়টি প্রত্যাহারের সম্মতি জ্ঞাপন করেন।   


9721. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : দিনাজপুর
তারিখ ও সময় : 03 Feb, 2020 06:04:31
বর্ণনা :

আমি নীলফামারী জেলার সৈয়দপুরের একজন বাসিন্দা। আমার কর্মস্থল দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে। আজ সকালে অফিস আসার সময় আমি যে গাড়ীতে আসি সেটার নম্বর রংপুর জ-0040। গাড়ীটি অনেক পুরাতন এবং গাড়ীটি রংপুর থেকে গেটলক হয়ে আসতেছে। এই রাস্তার গেটলক গাড়ী গুলো খুব দ্রুতগামী এবং সময় নিয়ে চলে তাই গাড়ীগুলোতে খুবই ভীড় হয়। রংপুর থেকে আসার সময় গাড়ীর টায়ার পাম্পচার হয় কিন্তু তারা সঙ্গে সঙ্গে মেরামত না করে যাত্রী নিয়ে সৈয়দপুর আসে। আমি সৈয়দপুর টার্মিনাল হতে উঠে বাস ছাড়ার কিছুক্ষণ পর এক যাত্রীর মুখে শুনে জানতে পারি গাড়ীর টায়ার পাম্পচার হয়েছে যে কোন সময় দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। আমার সঙ্গে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন প্রফেসর ছিলেন উনি রংপুর থেকে আসে উনার কাছে জানতে পারলাম উনি আগের গাড়ীতে রংপুর মেডিকেল মোড় থেকে উঠছিলেন কিন্তু সিও বাজার এসে ঐ গাড়ীর স্টারিং কাজ না করার কারনে উনি ঐ গাড়ী থেকে নেমে একটা প্রাইভেট গাড়ীতে এই পর্য ন্ত এসেছেন। পড়ে বাবেয়ায় এসে গাড়ীর চাকা ঠিক করতে চাইলে আমার মত অনেকে  অন্য গাড়ীতে যাওয়ার জন্য টাকা ফেরত চাওয়ায় তারা যাত্রীদের উপর চড়াও হয় এবং অনেক উচ্চবাক্য ব্যবহার করে এবং বাস স্ট্যান্ড-এ দাড়িয়ে থাকা দুটি বাসকে তাড়াতাড়ি ভাগিয়ে দিয়ে একটা কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে।  অগ্যতায় গাড়ী মেরামতের অপেক্ষায় থাকতে হয় এবং শেষ পর্যন্ত 45 মিনিট পর আমার গন্তব্যে পৌচ্ছায়।


আমার অভিযোগ সরকারের এত কড়া নজরদারির পরেও কিভাবে এ ধরনের গাড়ী রাস্তায় চলাচল করে তা কতৃপক্ষের উচচ মহলকে দেখার জন্য অনুরোধ করছি।


জবাব :

See Reply

আপনার অভিযোগ দাখিলের জন্য ধন্যবাদ

আপনার অভিযোগের ব্যাপারে ব্যবস্থা নেবার জন্য উপপরিচালক (ইঞ্জিঃ) রংপুর কে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। 

ধন্যবাদ


9720. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : কেশারপাড়,সেনবাগ,নোয়াখালী
তারিখ ও সময় : 01 Feb, 2020 21:13:36
বর্ণনা :

পত্রিকায় প্রকাশিত বিজ্ঞত্পি
অনেকদিন যাবত 02 নং কেশারপাড় ইউনিয়ন সংলগ্ন কেশারপাড়-কুতুবেরহাট-আদুল্যাহপুর রাস্তাটি মেরামতের অভাবে পড়ে আছে ।যার কারনে গ্রামবাসীর গুরুত্বপূর্ণ সময় অপচয় হচ্ছে।প্রায় 5-10 বছরের মতো রাস্তা ভাঙ্গা থাকার কারনে জনগণের অবস্থা হয়ে পড়েছে দুর্বিসহ।রাস্তাটির জন্য টেন্ডার আসার পরেও অজানা কারনে টেন্ডার বাতিল হয়ে যায়।জনগনের দুর্বিসহ অবস্থার কথা বিবেচনা করে এই বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে নোয়াখালী সড়ক বিভাগের দৃষটি  আকর্ষণ করছি।   


জবাব :

See Reply

আপনার অভিযোগ/মতামতের জন্য ধন্যবাদ।

উল্লেখিত ০২নং কেশারপাড় ইউনিয়ন সংলগ্ন কেশারপাড়-কুতুবেরহাট-আদুল্যাহপুর সডকটি সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের আওতাধীন নয়। আপনাকে স্থানীয় সরকার বিভাগের সাথে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা হল।


9719. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : গৌরিপুর, কুমিল্লা
তারিখ ও সময় : 30 Jan, 2020 15:37:51
বর্ণনা :

গৌরিপুর-ঢাকা রুটে বিআরটিসি বাসের কাউন্টারে সম্পূর্ণ ভাড়া পরিশোধ করেও টিকেট পাওয়া যায় না। বাস বিরতিহীনভাবে চলার কথা থাকলেও তা জায়গায় জায়গায় থামিয়ে যাত্রী উঠানামা করায়। প্রতিবাদ করায় আগ্রসী হয়ে উঠে। গাড়ি নম্বর ৫১৭৫।   


জবাব :

See Reply

যাত্রাবাড়ী বাস ডিপোর নিয়ন্ত্রনে গৌরিপুর-গুলিস্থান রুটে গুলিস্থান কাউন্টার হতে কাচপুর ব্রিজ পযন্ত একাধিক স্থানের যাত্রীর টিকিট বিক্রয় করা হয়। নির্ধারিত সিটের বিপরীতে এবং কাউন্টার হতে বাসের সিট অনুযায়ী টিকিট বিক্রয় করা হয়। নির্ধারিত আসনের অতিরিক্ত টিকিট বিক্রয় করা হয় না। টিকিটধারী যাত্রীদের স্বার্থে গুলিস্থান হতে কাঁচপুর পযন্ত যাত্রী উঠানো হয়।প্রত্যেক কাউন্টারে ভাড়ার টাকা পরিশোধের বিপরীতে টিকেট প্রদান বাধ্যতামুলক থাকা সত্বেও উক্ত যাত্রী কেন এবং কি কারনে টিকেট ছাড়া বাসে ভ্রমন করেছেন বিষয়টি বোধগম্য নয়।গৌরিপুর-গুলিস্থান রুটে চেক পয়েন্ট থাকার কারনে টিকেট বিহীন ভ্রমন কোন ভাবেই সম্ভব নহে।


9717. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : মোহাম্মাদপুর, ঢাকা
তারিখ ও সময় : 21 Jan, 2020 11:19:57
বর্ণনা :

আমি মোহাম্মাদপুরের একজন বাসিন্দা, আমি দীর্ঘ দিন যাবত বি আর টি সি দোতালা বাসে যাতায়াত করতেছি এবং মোহাম্মাদপুর বাস ডিপো থেকে মহাখালি পর্যন্ত ১০ টাকা ভাড়া নিচ্ছে, কিন্তু গত প্রায় ৭ দিন যাবত হটাত বাস ভাড়া বাড়িয়ে দেয় যার ফলে মহাখালি পর্যন্ত ভাড়া নেয় ১৪ টাকা প্রায় ৪০% ভাড়া বাড়িয়ে দেয় যার কোন সুনির্দিষ্ট কারন আমাদের জানা নেই, আমাদের জানা মত সরকার বাসের জালানির দাম বাড়ায় নি এবং ভাড়া ও বাড়ায় নি তাছাড়া মোহাম্মাদপুর বাস ডিপো ছাড়া অন্য কোন বাস ডিপোর বাসের ভাড়া বাড়ায় নি শুধু মোহাম্মাদপুর বাস ডিপো তাদের বাস ভাড়া বাড়িয়েছে।  উক্ত বিষয়ে উর্ধতন কর্তিপক্ষের সহযোগিতা কামনা করছি। 


জবাব :

See Reply

মোহাম্মদপুর বাস ডিপোর নিয়ন্ত্রনে পরিচালিত মোহাম্মদপুর টু কুড়িল বিশ্বরোড রুটের সম্মানিত যাত্রীগনের নিকট হতে মোহাম্মদপুর ডিপোর কাউন্টার হতে মহাখালী রেলগেইট পর্যন্ত ভাড়া ১০/- টাকা, তিতুমির কলেজ/গুলশান-১ পর্যন্ত ভাড়া ১৫/- টাকা নেয়া হয়। কোন যাত্রী টিকেটে উল্লেখিত গন্তব্য অতিক্রম করে পরবর্তী স্টপেজে পৌছালে অতিরিক্ত ৫/- টাকা ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। মোহাম্মদপুর বাস ডিপোর কোন রুটের বাস ভাড়া বৃদ্ধি করা হয়নি, সম্মানিত যাত্রী সাধারনের গন্তব্যের তারতম্যের কারনে ভাড়া কমবেশী হয়ে থাকে।


9714. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : মিরপুর, ঢাকা
তারিখ ও সময় : 20 Jan, 2020 05:57:31
বর্ণনা : মিরপুর হতে দোহার,ঢাকা রুটে কোন বাস সার্ভিস চালু নেই। মিরপুর বিআরটিসি বাস ডিপো. (মিরপুর-১২) হতে শ্রীনগর হয়ে দোহার,ঢাকা পযর্ন্ত বিআরটিসি বাস চালু করার জন্য সবিনয় অনুরোধ জানাচ্ছি
জবাব :

See Reply

ইত:পূর্বে মিরপুর বাস ডিপোর নিয়ন্ত্রণে গুলিস্তান-দোহার রুটে দাইয়্যু এসি বাস সার্ভিস চালু করা হয়েছিল। বাস পরিচালনাকালে রুটের বিভিন্ন সমস্যা যেমন-রুটের প্রশস্ততা কম হওয়ায় বিপরিতদিক থেকে আগত গাড়ি/ভ্যান/অটো ইত্যাদি পাস করতে বিঘ্ন ঘটে, কালভার্টের উচ্চতা বেশী থাকায় গাড়ির বাম্পার ফেসে যায় এবং যাত্রী সমাগম কম থাকার কারণে  রুটটি লাভজনক না হওয়ায় বাস পরিচালনা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। তাছাড়া, মিরপুর-মতিঝিল রুটে মেট্রোরেলের নির্মাণ কাজ চলমান থাকায় মিরপুর-পল্টন এবং পল্টন-কদমতলী রুটে সার্বক্ষণিক যানজট লেগেই থাকে। সে কারণে মিরপুর-শ্রীনগর-দোহার বাস পরিচালনা করা হলে দৈনিক নির্ধারিত ট্রিপ ও রাজস্ব অর্জন করা সম্ভব হবে না, বিধায় বর্তমানে রুটটি বন্ধ আছে। তবে বর্ণিত সমস্যার সমাধান হলে এ রুটে বাস পরিচালনা করা হবে।