.:সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত যে কোন সমস্যার তথ্য প্রদান করুন:.    Back to Home | Search by Id 
Back to Home Page
 


Your IP Address: 18.232.51.69
Your Client IP Address: 18.232.51.69
Your Server IP Address: 18.232.51.69
Your Browser: CCBot/2.0 (https://commoncrawl.org/faq/)

সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত যে কোন সমস্যার তথ্য প্রদান করুন
প্রদানকারীর নাম : *

ফোন নম্বর: *


ই-মেইল : *


স্হান, জেলা : *

বর্ণনা : *

সমস্যার/ক্ষতিগ্রস্থ স্থানের ছবি (যদি থাকে):
(Max size : 2MB)

আরো ছবি দিন


কোড নম্বরটি লিখুন



তথ্য প্রদানে কোনো কারিগরী ত্রুটির সম্মুখীন হলে যোগাযোগ করুন - ৯৫৭৫৫২৭ এই নম্বরে, E-mail : programmer1@rthd.gov.bd

 
ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রাপ্ত সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত তথ্য
Print  
9738. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : আমাদের স্কুল সড়কটি যে পথে প্রতিদিন প্বার্শভর্তি দুটি গ্রাম থেকে দুই থেকে তিনশত শিক্ষার্থী চলা ফেরা করে এবং এপথে গ্রামবাসী যাতায়ত। আমাদের রাস্তাটি ইটের সলিং ছিল. গত পনেরো মাস আগে পাকা রাস্তা হবে বলে আমাদের রাস্তার ইটগুলো উঠিয়ে নেওয়া হয়। কিন্তু অত্তান্ত দুঃখের বিষয়, এপর্যন্ত রাস্তার কাজটি সম্পূর্ণ হয়নি। রাস্তার ঠিকাদারের সাথে আলাপ করলে বিভিন্ন বাহানা দিয়ে যাচ্ছে। আগামী বর্ষার আগে রাস্তার কাজ সম্পূর্ণ না হলে মানুষ ডিজিটাল বাংলাদেশ এর সুফল পাবে না। তাই মহাদয়ের নিকট আকুল আবেদন রাস্তাটির শেষ করতে আপনার দ্রুত ব্যবস্তা কামনা করি। গ্রাম রশিদপুর ওয়াড নং ২ ইউনিয়ন - ৭নং বজরা উপজেলা সোনাইমুড়ি জেলা নোয়াখালী।
তারিখ ও সময় : 27 Feb, 2020 14:59:31
বর্ণনা :
জবাব :

See Reply

আপনার অভিযোগের জন্য ধন্যবাদ।

উপরে উল্লেখিত গ্রাম রশিদপুর ওয়াড নং-২ ইউনিয়ন-৭নং বজরা উপজেলা-সোনাইমুড়ি, জেলা-নোয়াখালী সডকটি সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের আওতাধীন নয়।


9737. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : কেরানিগঞ্জ, আটিবাজার
তারিখ ও সময় : 26 Feb, 2020 11:47:06
বর্ণনা :

জনাব,


আমি মোহাম্মাদপুর থেকে মহাখালিতে নিয়মিত বি আর টি সি দোতলা বাসে যাতায়াত করি এবং প্রতি দিন মহাখালি রেলগেট পর্যন্ত ১০ টাকা ভাড়া দিয়ে আসতেছি কিন্তু গত ১/১/২০২০ তারিখ থেকে মোহাম্মাদপুর বি আর টি সি বাস ডিপো থেকে মহাখালি পর্যন্ত অন্যায় ভাবে  ভাড়া ১৫ টাকা নিচ্ছে। এবং এ বিষয়ে কথা বললে বাস স্টাপদের খারাপ ব্যবহারের শিকার হতে হচ্ছে। উক্ত বিষয়ে  কর্তিপক্ষকে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহনের মাধ্যমে অপরাধির শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহন করে আমার মত হাজার হাজার যাত্রিকে সরকারি এই বাস টি ব্যবহার করার সুযোগ করে দেয়ার জন্য অনুরোধ যানাচ্ছি। 


জবাব :

See Reply

গত ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৫/০১ আশ্বিন ১৪২২ প্রজ্ঞাপন অনুসারে রিজিওনাল ট্রান্সপোর্ট কমিটি, ঢাকা মেট্রো অনুকরণে প্রত্যেক যাত্রীর কিলোমিটার প্রতি ১.৭০ টাকা ভাড়া ও সর্বনিম্ন ভাড়া ০৭(সাত) টাকা হিসেবে ভাড়ার চার্ট প্রস্তুত করে ডিপোর প্রতিটি বাসে সংযোজন করা হয়েছে। মোহাম্মদপুর টু কুড়িল বিশ্বরোড রুটের সম্মানিত যাত্রীগনের নিকট হতে মোহাম্মদপুর ডিপোর কাউন্টার হতে মোহাম্মদপুর/আড়ং হতে মহাখালী রেলগেইট পর্যন্ত ভাড়া ১০/- টাকা, তিতুমির কলেজ/গুলশান-১ পর্যন্ত ভাড়া ১৫/- টাকা বাড্ডা পর্যন্ত ২০/- টাকা এবং নর্দ্দা/কুড়িল বিশ্বরোড পর্যন্ত যাত্রী প্রতি ভাড়া ২৫/- টাকা আদায় করা হচ্ছে এবং কোন যাত্রী টিকেটে উল্লেখিত গন্তব্য অতিক্রম করে পরবর্তী স্টপেজে পৌছালে অতিরিক্ত ৫/- টাকা ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। উল্লেখ্য যে, সর্বনিম্ন ভাড়া ৭/- টাকা আদায়ের নির্দেশনা থাকলেও যাত্রী সেবা ও যাত্রীদের সুবিধার্থে ৫/- টাকা আদায় করা হচ্ছে। বাস ভাড়া বৃদ্ধি করা হয়নি, সম্মানিত অভিযোগকারীর সাথে সচিব, বিআরটিসি, দায়িত্বে ইউনিট প্রধান বার বার মোবাইলে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওযা যায়নি। অভিযোগকারীর অভিযোগটি ভিত্তিহীন। 


9736. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : কাকন হাট
তারিখ ও সময় : 25 Feb, 2020 17:53:47
বর্ণনা :

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী 


কাশিয়াডাঙ্গা -কাকনহাট -আমনুরা পর্যন্ত রাস্তার কাজের অনিয়মের বিরুদ্ধে কথা বলার পরেও কোন ব্যবস্থা না নেওয়ার প্রসঙ্গে । 


কাশিয়াডাঙ্গা থেকে আমনুরা পর্যন্ত রাস্তা বৃদ্ধির কাজের দ্বিতীয় এবং তৃতীয় অংশে যে অনিয়ম হয়েছে তা প্রসঙ্গে এর আগে অভিযোগ করা হলেও তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।


দ্বিতীয় অংশের কাজের উপর যে অভিযোগ আছে থাকবে।


তৃতীয় অংশের কাজের উপর যে অভিযোগ করা হয়েছিল  তা থাকবে।


সাধারণ মানুষের অভিযোগ করার অধিকার আছে অনিয়মের বিরুদ্ধে। দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসারদের এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য সরকার যে নির্দেশ দিয়েছে তা অফিসাররা যদি সঠিকভাবে মান্য করে তাহলে সরকারের উন্নয়ন কাজ গুলো অনেক  সুন্দর হবে। 


এতে সরকারের যেমন সুনাম হবে তেমন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সেরকম হবে সুনাম হবে। 


 


জবাব :

See Reply

আপনার অভিযোগের জন্য ধন্যবাদ।

কাশিয়াডাঙ্গা-কাকনহাট-আমনুরা সড়কে ইতিপূর্বে অভিযোগ উত্থাপনকারী ২ টি অভিযোগ উত্থাপন করেছিলেন।
দ্বিতীয় ভাগ ও তৃতীয় ভাগে যে অভিযোগ করা হয়েছিল সেই সম্পর্কে উত্তর প্রদান করা হয়েছে। অভিযোগ দুইটি উদ্দেশ্য প্রনোদিত ও সত্য নয় মর্মে উত্তর প্রদান করা হয়।
বর্তমানে কাশিয়াডাঙ্গা-কাকনহাট-আমনুরা সড়কের তিনটি প্যাকেজের চলমান আছে যা ১ জন উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী, ৩ জন উপ-সহকারী প্রকৌশলী নিয়োমিত দেখভাল করে থাকে।
তাছাড়া বিল প্রদানের ক্ষেত্রে ঠিকাদারের ল্যাবের পাশাপাশি মাঠ পর্যায়ের গবেষণাগার, রাজশাহী হতে মালামাল পরীক্ষা করা হয়।
অত্র দপ্তর কাজের মান নিয়ন্ত্রনে সর্বদায় সচেষ্ঠ।


9735. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : ঢাকা
তারিখ ও সময় : 25 Feb, 2020 12:30:59
বর্ণনা :

মতামতঃ


সদরঘাট থেকে কয়েকটি রুটে বিআরটিসি এসি ও ননএসি সিঙ্গেল ও ডাবল ডেকার বাস চালু করার জন্য মতামত পেশ করছি।


১. সদরঘাট টু মোহমম্মদপুর ভায়া ঝিগতলা।


২. সদরঘাট টু উত্তরা ভায়া ফার্মগেট।


৩. সদরঘাট টু উত্তরা ভায়া রামপুরা।


আসা করছি মতামত গ্রহন করে বাধিত করবেন।


জবাব :

See Reply

আপনার মতামতের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। বিআরটিসি মতিঝিল বাস ডিপো হতে ইতঃপূর্বে সদরঘাট হতে ‘ঊষা সার্ভিস’ চালু করা হয়েছিল। কিন্তু রাস্তা সরু, অত্যাধিক যানজট এবং অতিরিক্ত রিক্সা ও ছোট যানবাহন চলাচলের কারণে কাঙ্খিত ট্রিপসংখ্যা ও রাজস্ব অর্জন না হওয়ায় উক্ত বাস সার্ভিসটি বন্ধ করা হয়। তাছাড়া, সদরঘাট-দয়াগঞ্জ মোড়-ধোলাইখাল-যাত্রাবাড়ী-স্টাফ কোয়ার্টার-রামপুরা ব্রীজ পর্যন্ত চক্রাকার বাস সার্ভিস চালু করার লক্ষ্যে গত ৩০/১২/২০১৯ তারিখ রোজ সোমবার পরীক্ষামূলকভাবে সদ্য আমদানীকৃত অশোক লিল্যান্ড দ্বিতল বাস চালানো হয়েছিল। কিন্তু সদরঘাট প্রান্তে গাড়ি রাখার মত স্থান স্বল্পতা, অত্যধিক যানজট এবং রিক্সাসহ অন্যন্য ছোট গাড়ীর সংখ্যা বেশি ইত্যাদি কারণে বর্ণিত রুটটি লাভজনক হিসেবে বিবেচিত না হওয়ায় নিয়মিত বাস চলানো হয়নি। ভবিষ্যতে উক্ত রুটের প্রশস্থতা বৃদ্ধিসহ রিক্সা ও ছোট যানবাহন বন্ধ করা হলে সদরঘাট হতে বিআরটিসি’র এসি/নন-এসি বাস সার্ভিস পরিচালনা করার বিষয়টি বিবেচনা করা হবে। 


9734. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : Khulna
তারিখ ও সময় : 25 Feb, 2020 10:45:48
বর্ণনা :

Dear Sir/Madam,


I have come to know from different news media that a draft policy naming " Electric Vehicle Registration and Operation Guidelines 2018" is in this department. I have no information so far that the draft policy is finalized or not. I cordially request you to send me one copy of that policy to my email address shishir.aich@gmail.com if possible. It will be my pleasure for me if there is any opportunity to provide my opinion regarding the policy.


Thanks in advance. Waiting for your response as early as possible.


 


Shishir Aich


জবাব :

See Reply

জবাব: আপনার অভিযোগ দাখিলের জন্য ধন্যবাদ

ইলেকট্রিক মোটরযানের রেজিস্ট্রেশন ও চলাচলের বিষয়ে আইন , বিচার  ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগ কর্তৃক ভেটিংকৃত প্রজ্ঞাপনটি চূড়ান্তভাবে জারির নিমিত্তে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগে প্রেরণ করা হয়েছে। এতদ্সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি হলে ইলেকট্রিক মোটরযানের রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম গ্রহণ করা সম্ভব হবে।


9733. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : Dhaka সচিব
তারিখ ও সময় : 24 Feb, 2020 07:36:29
বর্ণনা : সচিব সাহেব
সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়
সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ
ভবন নং ৭, মেঝে নং ৮ , বাংলাদেশ সচিবালয়, ঢাকা -১০০০, বাংলাদেশ।

বিষয়: অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোঃ শওকত আলীর সরকারী কাজে লাগামহীন দুর্নীতি ও টেন্ডারবাজী প্রসঙ্গে।
জনাব,
বিনীত আবদেন এই যে, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোঃ শওকত আলীর সরকারী কাজে লাগামহীন দুর্নীতি ও টেন্ডারবাজী সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সকল সরকারী চাকরীজীবীদের চরম লজ্জায় ফেলে দিছ। তিনি সবসময় ভাল মানুষের ভান ধরে যেন ভাযা মাছ উল্টিয়ে খেতে পারেনা ও সচিব সাহেবের ভদ্রতার সুযোগ নিয়ে ও স্বচ্ছ টেন্ডার প্রক্রিয়াকে প্রশ্নের মুখে রেখে মোঃ শওকত আলী তার ভাই জোবাইদুল ইসলামকে বিভিন্ন জেলায় (জামালপুর, শেরপুর, সিলেট, সুনামগঞ্জ, টাঙ্গাইল) ও বিভিন্ন কাজে নিয়োজিত করেছেন। কুমিল্লা, নোয়াখালী, ফেনী, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া, চাদপুর ও লক্ষীপুর সড়ক বিভাগে তার দুর্নীতির কালো ছোবল পড়তে শুরু করেছে। তাছাড়া জামালপুর, শেরপুর ও টাঙ্গাইলে বিভিন্ন কাজে তিনি ঠিকাদারদের সাথে কাজের সময় পার্টনার হয়ে যান ও ঠিকাদারদের লাভের টাকায় ভাগ বসান। কোন ঠিকাদার কাকে লাইসেন্স ভাড়া দিবে সেটা শওকত আলী ঠিক করে দেন এবং এর জন্য টাকা খেয়ে সাবঠিকাদারদের সাথে দেন দরবার করেন। রানা বিল্ডার্সের আলম ভাই বা মুজাহার ভাই বা ওয়াহিদ ভাই এর থেকে উনার সম্পর্কে তথ্য নেন কিভাবে তিনি কাজ ভাগাভাগি করেন। অত্যন্ত লোভী ও চতুর মোঃ শওকত আলী টেন্ডারবাজী করে কমপক্ষে ২ শত কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ আহরণ করেন। সরিষাবাড়ীর চালহীন ভিটাহীন অত্যন্ত গরীব ঘরের মোঃ আব্দুস সাত্তার কৃষকের ছেলে ছেলে মোঃ শওকত আলী। স্ত্রী কনিজ ফাতেমা ও ভাই জোবাইদুল ইসলাম, বাবা-মার নামে শত শত কোটি টাকার ফ্ল্যাট, বাড়ী, জমি ও দামী গাড়ী সহ অবৈধ সম্পদ গড়ে তুলেছেন। অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোঃ শওকত আলীর বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার ট্রাইবুনালে দুদকের মাধ্যমে সুষ্ঠু তদন্ত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে না পারলে মুক্তিযুদ্ধা ও বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবেনা ও নিরীহ কর্মকর্তারা কাজ করতে পারবে না।

নিবেদক
মিলন মিয়া, ঢাকা (০১৭০৩৭৬৬২৮৮)
জবাব :

See Reply

আপনার অভিযোগের জন্য ধন্যবাদ।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সমুহ আরও সুনির্দিষ্টভাবে উপস্থাপন করে দাখিলের জন্য অনুরোধ করা হলো। সুনির্দিষ্ট অভিযোগের প্রেক্ষিতে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।


9732. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : মোহাম্মাদপুর, ঢাকা
তারিখ ও সময় : 24 Feb, 2020 06:56:48
বর্ণনা :

আমি গত ২১/০১/২০২০ তারিখে আমি একটি অভিযোগ করেছিলাম অভিযোগ নাম্বার ৯৭১৭ খুব অল্প সময়ের মধ্যে অভিযোগটির REPLY পেয়ে আমি খুবই আনন্দিত REPLY তে বলা হয়েছিল মোহাম্মাদপুর বি আর টি সি বাস ডিপো থেকে মহাখালি পর্যন্ত বাস ভাড়া বাড়ানো হয় নি ভাড়া ১০ টাকা ই আছে কিন্তু খুবই কষ্টের সাথে যানাচ্ছি যে আমদের কাছ থেকে প্রতিদিন ১৪-১৫ টাকা করেই নিচ্ছে ১০ টাকা দিতে চাইলে তাদের খারাপ ব্যবহারের শিকার হতে হচ্ছে, এমতাবস্তায় মোহাম্মাদপুর থেকে মহাখালি যাতায়াত কারি হাজারো অসহায় যাত্রির পক্ষে আমি আপনাদের হস্তক্ষেপ কামনা করছি, বিষয়টি গোপনে স-শরীরে তদন্ত করে অপরাধীকে শাস্তির আওতায় এনে মোহাম্মাদপুরের যাত্রিদের এ দুর্ভোগ থেকে রেহাই দেয়ের জন্য বিনীত ভাবে অনুরোধ করছি।    


জবাব :

See Reply

আপনাকে ধন্যবাদ। ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৫/০১ আশ্বিন ১৪২২ প্রজ্ঞাপন অনুসারে রিজিওনাল ট্রান্সপোর্ট কমিটি, ঢাকা মেট্রো অনুকরণে প্রত্যেক যাত্রীর কিলোমিটার প্রতি ১.৭০ টাকা ভাড়া ও সর্বনিম্ন ভাড়া ০৭(সাত) টাকা হিসেবে ভাড়ার চার্ট প্রস্তুত করে ডিপোর প্রতিটি বাসে সংযোজন করা হয়েছে। মোহাম্মদপুর টু কুড়িল বিশ্বরোড রুটের সম্মানিত যাত্রীগনের নিকট হতে মোহাম্মদপুর ডিপোর কাউন্টার হতে মোহাম্মদপুর/আড়ং হতে মহাখালী রেলগেইট পর্যন্ত ভাড়া ১০/- টাকা, তিতুমির কলেজ/গুলশান-১ পর্যন্ত ভাড়া ১৫/- টাকা বাড্ডা পর্যন্ত ২০/- টাকা এবং নর্দ্দা/কুড়িল বিশ্বরোড পর্যন্ত যাত্রী প্রতি ভাড়া ২৫/- টাকা আদায় করা হচ্ছে এবং কোন যাত্রী টিকেটে উল্লেখিত গন্তব্য অতিক্রম করে পরবর্তী স্টপেজে পৌছালে অতিরিক্ত ৫/- টাকা ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। উল্লেখ্য যে, সর্বনিম্ন ভাড়া ৭/- টাকা আদায়ের নির্দেশনা থাকলেও যাত্রী সেবা ও যাত্রীদের সুবিধার্থে ৫/- টাকা আদায় করা হচ্ছে। বাস ভাড়া বৃদ্ধি করা হয়নি, সম্মানিত অভিযোগকারীর সাথে সচিব, বিআরটিসি, দায়িত্বে ইউনিট প্রধান বার বার মোবাইলে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওযা যায়নি। অভিযোগকারীর অভিযোগটি ভিত্তিহীন। 


9731. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : মোহাম্মাদপুর, ঢাকা
তারিখ ও সময় : 24 Feb, 2020 06:55:19
বর্ণনা :

আk০ টাকা ই আছে কিন্তু খুবই কষ্টের সাথে যানাচ্ছি যে আমদের কাছ থেকে প্রতিদিন ১৪-১৫ টাকা করেই নিচ্ছে ১০ টাকা দিতে চাইলে তাদের খারাপ ব্যবহারের শিকার হতে হচ্ছে, এমতাবস্তায় মোহাম্মাদপুর থেকে মহাখালি যাতায়াত কারি হাজারো অসহায় যাত্রির পক্ষে আমি আপনাদের হস্তক্ষেপ কামনা করছি, বিষয়টি গোপনে স-শরীরে তদন্ত করে অপরাধীকে শাস্তির আওতায় এনে মোহাম্মাদপুরের যাত্রিদের এ দুর্ভোগ থেকে রেহাই দেয়ের জন্য বিনীত ভাবে অনুরোধ করছি।    


 


জবাব :

See Reply

আপনার অভিযোগ দাখিলের জন্য ধন্যবাদ

আপনার অভিযোগের  বিষয়ে জরুরি ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট উপপরিচালক বরাবর অভিযোগ পত্রটি প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি অভিযোগটি সমাধান করবেন।

 


9730. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : চাঁপাইনবাবগঞ্জ
তারিখ ও সময় : 23 Feb, 2020 14:03:13
বর্ণনা :

স্যার,


    আমি খুবই আনন্দের সাথে স্বীকার করছি যে, ইতিমধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার দাইপুখুরিয়া ইউনিয়নের 1 নং ওয়ার্ড কর্ণখালী গ্রামে যে সেতুটি সংস্কার করার প্রয়োজন ছিল তা করা হয়েছে গত 1 মাস পূর্বে । আমি এ আনন্দ ভাষায় প্রকাশ করে শেষ করতে পারবো না। বর্তমানে আমাদের এলাকায় মাত্র 3/4 কিলোমিটার কাচা রাস্তা পাকাকরণ করা হলে এলাকাবাশীর অর্থনৈতিক অবস্থা খুবই গতিশীল হবে বলে আমি মনে করি। কেননা অত্র এলাকার অধিকাংশ আবাদী জমি বিলভাতিয়ায় অবস্থিত। আর বিলভাতিয়ায় যোগাযোগ করার একমাত্র রাস্তাটি একেবারে কাচাঁ । স্যার, কর্ণখালী টুনিবাজার থেকে দৌলতবাড়ী গ্রাম পর্যন্ত প্রায় 3/4 কিঃমি রাস্তা পাকাকরণ করে অত্র এলাকার মানুষকে চরম দুভোগের হাত থেকে রক্ষা করবেন বলে আমি বিশ্বাস করি।


জবাব :

See Reply

আপনার অভিযোগ/মতামতের জন্য ধন্যবাদ।

অভিযোগে বর্ণিত  কর্ণখালী   টুনিবাজার থেকে দৌলতবাড়ী গ্রাম পর্যন্ত প্রায় ৩/৪  কিলোমিটার  কাচা সড়কটি  সড়ক ও জনপথ বিভাগের অধিভিূক্ত সড়ক নয়। এটি একটি গ্রামীন সড়ক যা এলজিইডি/ইউনিয়ন পরিষদ কর্তৃক নির্মাণ/ সংস্কার করা হয়ে থাকে। উক্ত স্থানে সড়ক নির্মাণের আপাতত কোন পরিকল্পনা সড়ক ও জনপথ বিভাগ, নবাবগঞ্জের নেই।


9729. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : লালমাই হতে লাকসাম চন্দনা বাজার সড়ক।
তারিখ ও সময় : 23 Feb, 2020 10:29:43
বর্ণনা :

লালমাই হতে লাকসাম বাইপাস  চন্দনা বাজার পর্যন্ত   প্রায় ১৫ কিলোমিটার সড়ক  এর টেন্ডার সম্পন্ন হয়েছে আরো তিনমাস আগে কিন্তু এখনো কাজটি শুরু হয়নি। অতিগুরুত্বপূর্ণ কুমিল্লা- নোয়াখালী মহাসড়কের লালমাই হতে লাকসাম বাইপাস চন্দনা  বাজার অংশের সড়কের চারলেনে উন্নীতকরন প্রকল্পের কাজ  দ্রুততম সময়ের মধ্যে   শুরুকরনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা   নিতে মাননীয় সড়কপরিবহন ও সেতুমন্ত্রী     মহোদয়ের নিকট আকুল আবেদন   জানাই।      


জবাব :

See Reply

জবাব,

‘‘কুমিল্লা(টমছমব্রীজ)-নোয়াখালী(বেগমগঞ্জ) আঞ্চলিক মহাসড়ক ৪-লেনে উন্নীতকরণ” প্রকল্পের প্যাকেজ-০২ এর আওতায় কুমিল্লা সড়ক বিভাগাধীন কুমিল্লা-চাঁদপুর (আর-১৪০) আঞ্চলিক মহাসড়কের চেইঃ ১১+১০০ হতে ২৮+১০০ = ১৭.০০ কিলোমিটার (লালমাই হতে চন্দনা) সড়ক অন্তর্ভূক্ত রয়েছে। উক্ত প্যাকেজের দরপত্র মন্ত্রণালয়ে অনুমোদন প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। অনুমোদন পাওয়া মাত্রই কাজ শুরু করা হবে।‘‘কুমিল্লা(টমছমব্রীজ)-নোয়াখালী(বেগমগঞ্জ) আঞ্চলিক মহাসড়ক ৪-লেনে উন্নীতকরণ” প্রকল্পের প্যাকেজ-০২ এর আওতায় কুমিল্লা সড়ক বিভাগাধীন কুমিল্লা-চাঁদপুর (আর-১৪০) আঞ্চলিক মহাসড়কের চেইঃ ১১+১০০ হতে ২৮+১০০ = ১৭.০০ কিলোমিটার (লালমাই হতে চন্দনা) সড়ক অন্তর্ভূক্ত রয়েছে। উক্ত প্যাকেজের দরপত্র মন্ত্রণালয়ে অনুমোদন প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। অনুমোদন পাওয়া মাত্রই কাজ শুরু করা হবে।