.:সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত যে কোন সমস্যার তথ্য প্রদান করুন:.    Back to Home | Search by Id 
Back to Home Page
 


Your IP Address: 3.238.184.78
Your Client IP Address: 3.238.184.78
Your Server IP Address: 3.238.184.78
Your Browser: CCBot/2.0 (https://commoncrawl.org/faq/)

সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত যে কোন সমস্যার তথ্য প্রদান করুন
প্রদানকারীর নাম : *

ফোন নম্বর: *


ই-মেইল : *


স্হান, জেলা : *

বর্ণনা : *

সমস্যার/ক্ষতিগ্রস্থ স্থানের ছবি (যদি থাকে):
(Max size : 2MB)

আরো ছবি দিন


কোড নম্বরটি লিখুন



তথ্য প্রদানে কোনো কারিগরী ত্রুটির সম্মুখীন হলে যোগাযোগ করুন - ৯৫৭৫৫২৭ এই নম্বরে, E-mail : programmer1@rthd.gov.bd

 
ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রাপ্ত সড়ক যোগাযোগ সর্ম্পকিত তথ্য
Print  
9899. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : আবদুল্ল্যা মিয়ার হাট, কবিরহাট, নোয়াখালী।
তারিখ ও সময় : 03 Dec, 2020 15:00:24
বর্ণনা :

মাননীয় মন্ত্রী,


সড়ক ও যোগাযোগ মন্ত্রনালয়।


বিষয় ঃঃ সোনাপুর(নোয়াখালী) , সোনাগাজী (ফেনী), জোরারগঞ্জ ( চট্টগ্রাম) সড়ক কবে নাগাদ চালু হবে এবং আন্তঃজেলা বাস ও ট্রাক চালু হবে কিনা তা জানার জন্য আর্জি।


জনাব,


সবিনয়ে নিবেদন এই যে আমরা আবদুল্লাহ মিয়ার হাট বাসী যখন থেকে জানতে পারলাম,নোয়াখালীর সাথে চট্টগ্রাম এর যোগাযোগ ব্যাবস্হা আরো সহজিকরণ এর জন্য সোনাপুর সোনাগাজী ও জোরারগঞ্জ সড়ক চালু হবে তখন থেকে আমরা অনেক বেশি আনন্দত। কিন্তু সড়কের কিছু অংশ শেষ হওয়ার পরও পূর্ণাাাঙ্গ ভাবে সড়কের কাজ শেষ হয় নাই। কবে নাগাদ এই সড়ক কাজ শেষ হবে এবং যানবাহন চলাচল করবে তা জানতে চাই। রাস্তার প্রসস্থ কতটুকু বা রাস্তা কি আর সম্প্রসারণ করা হবে কিনা এবং আন্তঃজেলা বাস ও ট্রাক চালু করা হবে কিনা তা জানার জন্য মহোদয়ের যেন আর্জি হয়। এবং রাস্তায় প্রচুর বাঁক রয়েছে যা অনেক দুর্ঘটনার জন্ম দিতে পারে। বাঁকগুলো যেন সোজা করা যায় সে দিকেও একটু সুদৃষ্টি কামনা করছি



9898. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : bd
তারিখ ও সময় : 03 Dec, 2020 11:54:22
বর্ণনা :

asslamoalykom দেশের মধ্যে অনেক জায়গায় ভাস্কর্য নিয়ে অনেক হাঙ্গামা মারা মারি মূলক ঘটনা ঘটতেছে। কিন্তু আমাদের মতে এ সব টাকা ভাস্কর্য বা মূর্তি তে বেবহার না করে । যেসব জায়গায় ভাস্কর্য তৈয়ার করার পদক্ষেপ নিয়েছেন সে সব জায়গায় ছোট ছোট বঙ্গবন্ধুর নামে মসজিদ দিন । বা ছোট ছোট হেফজখানা দিন তাহলে দেশের শান্তি হবে এবং বঙ্গবন্ধুর রুহের মাগফেরাত হবে। কিন্তু ভাস্কর্য কোন লাভ হবে বরং বঙ্গবন্ধু র উপর এসব ভাস্কর্যের জন্য আযাব চলবে। কারণ রাসুল তো সারা জাহানের রাসুল তাহলে তাকে আললাহ পাক সমগ্র বিশ্বের দেশের মধ্যে এরকম ভাস্কর্য বানিয়ে রাখতে বলতেন । কিন্তু আললাহ পাক ত কোরানে বলেননি এবং আরবের লোকেরা ও ভাস্কর্য বানিয়ে রাখেন নি। । সেসব দিক বিবেচনা করে আমাদের দেশের মধ্যে ভাস্কর্যের পরিবর্তে বঙ্গবন্ধু জামে মসজিদ এবং বঙ্গবন্ধু হেফজখানা ইত্যাদি তৈয়ার করে জনগণের সাথে মুসলিম ভাইদের সাথে যে মনোমালিন্য ঘটতে ছে তা হতে সবাই পরিত্রাণ পাবে। আশা করি আর ভাস্কর্য তৈয়ার না করে আমাদের আবেদন বরাবরই করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি এতে লাভ হবে । বঙ্গবন্ধু র প্রতি দিন মসজিদের মধ্যে ফাতেহা যিযারত চলবে। হেফজখানায় যারা কোরান শিখে কোরান খতমের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর রুহের মাগফেরাত কামনা করবে। এতে দেশের উন্নতি হবে শান্তি আসবে



9897. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : сайт
তারিখ ও সময় : 30 Nov, 2020 04:55:41
বর্ণনা : Hi, here on the forum guys advised a cool Dating site, be sure to register - you will not REGRET it https://bit.ly/39cc9gy

9874. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : বান্দরবান লামায় বালির পরিবর্তে মাটি দিয়ে চলছে সওজ এর ১১ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ। অনিয়মের অভিযোগ ঠিকাদারি প্রতিষ্টানের বিরুদ্ধে। লামা( বান্দরবান) প্রতিনিধিঃ সড়ক ও জনপথ বিভাগের অর্থায়নে লামা উপজেলায় ১১ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে ৫ সেপ্টেম্বর এই কাজ শুরু হওয়ার পর থেকে উক্ত কাজের গুনগত মান নিয়ে একাধিক গণমাধ্যম, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সহ বিভিন্ন ভাবে প্রতিবাদ করেছে লামার সচেতন নাগরিক মহল। লামা বাজারের চৌরাস্তার মোড় হতে মধুঝিরি পর্যন্ত এই উন্নয়ন প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে লামা বাজারের প্রাণকেন্দ্র গোপাল বাবুর মোড় হতে মধুঝিরি পর্যন্ত ড্রেন নির্মান রাস্তা উঁচু ও প্রশস্তকরন, কাজটি বাস্তবায়ন করছে রিমি নির্মান সংস্থা নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্টান। এদিকে উক্ত উন্নয়ন কাজ শুরু হওয়ার পর থেকে ঠিকাদারি প্রতিষ্টানের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ তুলেছে লামার স্থানীয় জনসাধারণ ও সচেতন মহল, উক্ত উন্নয়ন কাজের শুরু হতে নিন্মমানের সিমেন্ট ব্যবহার, নির্ধারিত পরিমাপের চাইতে কম পরিমাপের রডের ব্যবহার, বালি ফিলিং ও সাব বেইজ মেকাডমে তার কার্যাদেশ অনুসারে কাজ না করে নিজেদের ইচ্ছে মত কাজ করছে, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক লামা বাজারের কয়েজজন ব্যাবসায়ী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন উক্ত প্রকল্পের কার্যাদেশ মোতাবেক বাজারের যানজট নিরসনের জন্য রাস্তার বাম পাশে ড্রেন নির্মান করার কথা থাকলেও তা মানছেনা ঠিকাদারি প্রতিষ্টান। এ ছাড়াও সরেজমিনে দেখাযায় নিন্মমানের নির্মান সামগ্রী ব্যবহার করে কাজ চলছে, ড্রেন নির্মানের জন্য উন্নতমানের পাথরের কংকর ব্যবহারের কথা থাকলে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান তা না মেনে ইটের কংকর দিয়ে ড্রেনের ঢালাই কাজ করেছে, নিয়ম মোতাবেক ড্রেনের নিচের অংশের বেইজ ঢালাই ৪ ইঞ্চি হওয়ার কথা থাকলেও তা না মেনে গড়ে ২ ইঞ্চির ঢালাই দিয়ে ড্রেনের কাজ করেছে। কার্যাদেশে যেই সিমেন্ট ব্যবহার কথা তা না করে নিন্মমানের সিমেন্ট ব্যবহার করছে, যেই এমএম এর রড় ব্যবহার করার কথা তা না করে নিন্মমানের রড় ব্যবহার করছে, প্রতিদিনের কাজের তদারকির জন্য ঊধ্বর্তন অফিসার উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও তা অমান্য করে সড়ক ও জনপদ বিভাগ বান্দরবানের কোন প্রকৌশলীর তদারকি ছাড়া অফিসের দারোয়ানের ও একজন কার্যসহকারীর মাধ্যমে কাজ তদারকি করা হয়, যার ফলে কাজের গুনগত মান নিশ্চিত হচ্ছেনা। বালির পরিবর্তে মাটি দিয়ে কাজ করার বিষয়ে জানতে চাইলে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার সোহান জানায়, আমরা কার্যাদেশ অনুযায়ী কাজ করছি, মাটি দিয়ে ভরাট করার বিষয়ে কার্যাদেশে উল্লেখ রয়েছে। উক্ত কাজে অনিয়ম সহ সার্বিক বিষয়ে জানতে চাইলে , বান্দরবান সড়ক বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী প্রকৌশল বলেন আমি নির্বাহী প্রকৌশলী হিসেবে নতুন যোগদান করেছি, এ বিষয়ে খোজখবর নিয়ে জানাব এবং কোন অনিয়ম থাকলে ব্যাবস্থা গ্রহন করব। সংবাদ প্রেরক শাহাব উদ্দিন। তারিখঃ ১১/১০/২০২০ মোবাইলঃ ০১৮২৫৪৪২৩১০
তারিখ ও সময় : 11 Nov, 2020 16:19:01
বর্ণনা :
জবাব :

See Reply

জনাব,

অভিযোগের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ,

বান্দরবান সড়ক বিভাগের আওতায়  পিএম পি (মেজর সড়ক) কর্মসূচীর অন্তর্ভূক্ত  Periodic Maintenance Programme (PMP-Major) on Chiringya (Fasiakhali) - Lama- Alikadam -Road (Z-1005) ( Lama Bazar Link Portion) from 41st KM to 44th KM by Raising, Rigid Pavement  Surfacing and other Related works under Bandarban Road Division during the Year 2019-2020  কাজটি বাস্তবায়ন করা হচেছ ।

 ইতোমধ্যে কাজের আওতায় ৩২৫ মিটার আর সি সি ড্রেইন নির্মাণ  করা হয়েছে । সংশ্লিষ্ট উপ- বিভাগীয় প্রকৌশলী অবগত করেন যে, Technical Specification  ও দরপত্র শর্তানুযায়ী কাজটি বাস্তবায়িত হচেছে এবং নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত নির্মাণ সামগ্রীর গুনগতমান পরীক্ষা করা হয়েছে  । বর্তমানে বর্ণিত কাজের মূল অংশ ১.১০ কি:মি: সড়ক (বর্ষাকালে পানিতে নিমজ্জিত অংশ ) উচুঁকরণের কাজ চলছে । চুক্তি অনুযায়ী ও প্রাক্কলনে অন্তর্ভূক্ত দফা অনুযায়ী কাজটি সম্পাদন করা হচেছ ।   সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার কে  গুনগতমান  বজায় রেখে কাজটি সম্পন্ন করার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে ও সংশ্লিষ্ট  উপ- বিভাগীয় প্রকৌশলী সওজ , ও উপ- সহকারী প্রকৌশলী, সওজ কে কাজের সাইটে উপস্থিত থেকে কাজের গুনগতমান নিশ্চিত করে কাজটি সম্পন্ন করার জন্য বলা হয়েছে।


9872. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : chittagong raozan and hathazari
তারিখ ও সময় : 11 Nov, 2020 08:52:39
বর্ণনা :



যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে MP mahodoy shaheb asslamoalykom





আমাদের জনগণের দাবী চট্টগ্রামসথ হাটহাজারী এবং রাউজান সংযোগ স্থল কাগতিযা আজিমারঘাট এবং গড়দুয়ারা এবং উত্তর মাদারশার মধ্যেভর্তি স্থান নৌকা পারাপারের জায়গায় হালদার নদীতে 3য় bridge টির কাজ এ মাস হতে শুরু করার আহ্বান জানাচ্ছি অনেক আবেদন করেছি, বাজেট ও হয়েছে শুধু কাজ শুরু হয়নি । তাই দ্রুত কাজ শুরু করে জনগণের দীর্ঘ দিনের দুর্ভোগ দুরীভিত করার আহ্বান জানাচ্ছি এবং তৃতীয় সংযোগ স্থাপন করে। সংযুক্ত রোড গুলো developed করে দিলে শহরের সাথে বদিউল আলম হাট হয়ে ফতেযাবাদ স্কুল হয়ে শহরের সাথে সুন্দর যোগাযোগ স্থাপন হবে তাই আগামী শীতকালীন মৌসুমের ভেতর ব্রীজের কাজ কমপিলিট করার আহ্বান জানাচ্ছি । এতে সরকার জনগণ বেবসায়ি এবং শিক্ষার্থীদের কষ্ট লাঘব হবে । সবার উন্নতি হবে । তাই আমাদের আবেদন ডিসেম্বর র 1তারিখ হতে কাজ শুরু করে সকলের দীর্ঘ দিনের আশা পূরণ করবেন ।




 

 

 

 




 


 









 

জবাব :

See Reply

জনাব, 

অভিযোগের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ,

বর্ণিত সড়ক ও সেতুটি সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের আওতাভূক্ত নয়। ইহা এলজিইডি এর আওতাধীন।


9866. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : আবদুল্ল্যা মিয়ার হাট, কবিরহাট, নোয়াখালী।
তারিখ ও সময় : 04 Nov, 2020 16:59:27
বর্ণনা :

মাননীয় মন্ত্রী, 


সড়ক ও যোগাযোগ মন্ত্রনাল। 


বিষয় ঃঃ সোনাপুর(নোয়াখালী) , সোনাগাজী (ফেনী), জোরারগঞ্জ ( চট্টগ্রাম)  সড়ক কবে নাগাদ চালু হবে এবং রাস্তা কতটুকু প্রসস্থ হবে তা জানার জন্য আর্জি। 


জনাব,


 সবিনয়ে নিবেদন এই যে আমরা আবদুল্লাহ মিয়ার হাট বাসী যখন থেকে জানতে পারলাম,নোয়াখালীর সাথে চট্টগ্রাম এর যোগাযোগ ব্যাবস্হা আরো সহজিকরণ এর জন্য সোনাপুর সোনাগাজী ও জোরারগঞ্জ সড়ক চালু হবে তখন থেকে আমরা অনেক বেশি আনন্দত। কিন্তু সড়কের কিছু অংশ শেষ হওয়ার পরও পূর্ণাাাঙ্গ ভাবে সড়কের কাজ শেষ হয় নাই। কবে নাগাদ এই সড়ক কাজ শেষ হবে এবং যানবাহন চলাচল করবে তা জানতে চাই। রাস্তার প্রসস্থ কতটুকু বা রাস্তা কি আর সম্প্রসারণ করা হবে কিনা তা জানার জন্য মহোদয়ের যেন আর্জি হয়। এবং রাস্তায় প্রচুর বাঁক রয়েছে যা অনেক দুর্ঘটনার জন্ম দিতে পারে। বাঁকগুলো যেন সোজা করা যায় সে দিকেও একটু সুদৃষ্টি কামনা করছি।                                                   


জবাব :

See Reply

জনাব, 

অভিযোগ করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ,

উপরে উল্লেখিত সোনাপুর(নোয়াখালী)-সোনাগাজী(ফেনী)-জোরারগঞ্জ (চট্টগ্রাম)  সড়কের নোয়াখালী অংশের পূর্ত কাজ সমাপ্ত হয়েছে। ফেনী সড়ক বিভাগাধীন অংশে ভূমি অধিগ্রহণ ব্যয় পরিশোধের জন্য সংশোধিত উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা ২৭/১০/২০২০ খ্রিঃ তারিখ একনেক সভায় অনুমোদন হয়েছে। প্রকল্পটি ৩০ জুন, ২০২১ খ্রিঃ এর মধ্যে সমাপ্ত হবে।  সড়কটি ১৮ ফুট প্রশস্ততায় নির্মাণ করা হয়েছে। ভবিষ্যতে যানবাহনের সংখ্যা ও নেটওয়ার্কের গুরুত্ব অনুসারে সড়কটি আরও প্রশস্তকরণ করা হবে এবং সড়কে বাঁক সোজা করণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


9865. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : শেরপুর
তারিখ ও সময় : 04 Nov, 2020 16:37:08
বর্ণনা :

বিষয়ঃ সিলেট-সুনামগঞ্জ-নেত্রকোনা-ময়মনসিংহ-শেরপুর-দেওয়ানগঞ্জ-গাইবান্ধা মহাসড়ক নির্মাণ/উন্নয়ন কাজ দ্রুত বাস্তবায়ন প্রসংগে।


জনাব/জনাবা, 


সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের আওতায় সিলেট-সুনামগঞ্জ-নেত্রকোনা-ময়মনসিংহ-শেরপুর-দেওয়ানগঞ্জ-গাইবান্ধা মহাসড়ক প্পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশীপ (পিপিপি) ভিত্তিতে নির্মাণ/উন্নয়ন প্রকল্প পরিকল্পনাধীন রয়েছে। এই মহাসড়কটি আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপটে এবং ভৌগলিকভাবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এতে দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের সাথে উত্তর-পূর্বাঞ্চলের একটি সুষম মহাসড়ক নেটওয়ার্ক প্রতিষ্ঠিত হবে। জানা যায় যে, প্রায় ২৬০ কিলোমিটার মহাসড়কটিতে প্রতিদিন গড়ে আনুমানিক ২৫০০০ (পঁচিশ হাজার) যানবাহন চলাচল করে।


ভৌগলিকভাবে, গাইবান্ধা জেলার সাথে সিলেট জেলার সরাসরি সড়ক যোগাযোগ তৈরি হবে। বাণিজ্যিকভাবে, নকুগাঁও স্থলবন্দর (নকলা, শেরপুর), ধনুয়া-কামালপুর স্থলবন্দর (বকশীগঞ্জ, জামালপুর), গোবরাকুড়া-কড়ইতলী স্থলবন্দর (হালুয়াঘাট, ময়মনসিংহ), তামাবিল স্থলবন্দর (গোয়াইনঘাট, সিলেট), শেওলা স্থলবন্দর (বিয়ানীবাজার, সিলেট), ভোলাগঞ্জ স্থলবন্দর (কোম্পানীগঞ্জ, সিলেট), আখাউড়া স্থলবন্দর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) ইত্যাদি স্থলবন্দরসমূহের সাথে চট্টগ্রাম, মংলা ও পায়রা পোর্টের (আশুগঞ্জ নদীবন্দর হয়ে) একটি মহাসড়ক আন্তঃসংযোগ স্থাপিত হবে। এতে এই অঞ্চলসমূহের মানুষের কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পেয়ে জীবনমানের উন্নয়ন হবে।


পাশাপাশি, উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থানসমূহ যেমনঃ গাইবান্ধার বর্ধনকুঠি, বালাসীঘাট; জামালপুরের শেখ হাসিনা সাংস্কৃতিক পল্লী, গারো পাহাড় লাউচাপড়া; শেরপুরের গজনী, মধুটিলা, রাজার পাহাড় ও বাবেলাকোণা, নয়াবাড়ির টিলা, পানিহাটা-তারানি পাহাড়, সুতানাল দিঘী; ময়মনসিংহের শশী লজ, আলেকজান্ডার ক্যাসেল, জয়নুল আবেদীন সংগ্রহশালা, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, মুক্তাগাছার জমিদার বাড়ী; নেত্রকোণার বোয়াইলবাড়ি দূর্গ, রাণীখং মিশন, কমলা রাণী দিঘী, বিজয়পুর; সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওড়, হাসন রাজার জমিদার বাড়ী, বাউল সম্রাট শাহ আব্দুল করিম এর বাড়ী; ও সিলেটের চা-বাগান, তামাবিল, জাফলং, হাকালুকি হাওড়, রাতারগুল ইত্যাদি পর্যটক আকর্ষণীয় স্থানসমূহে সড়কের মাধ্যমে সরাসরি ভ্রমণ সুবিধা সহজতর হয়ে দেশের অর্থনীতির গতি বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।  


দেশের উত্তরাঞ্চলের মানুষের দুঃখ-দুর্দশা লাঘব করে জীবনমান উন্নয়নে উক্ত মহাসড়কটির নির্মাণ/উন্নয়ন অত্যন্ত ফলপ্রসূ হবে। বর্তমানে বন্যা ও কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে বর্ণিত অঞ্চলসমূহের ব্যবসা-বাণিজ্যের সংকোচন হয়েছে এবং জনমানুষের একটি বিরাট অংশ জীবিকা হারিয়ে অত্যন্ত দুঃখ-কষ্টে মর্মন্তুদ জীবনযাপন করছে। এমতাবস্থায়, বর্ণিত প্রকল্পটি দ্রুত বাস্তবায়ন হলে ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার, পরিবহন ব্যবস্থা ও ব্যবস্থাপনার উন্নতি, পরিবহন ব্যয়ের হ্রাস, পর্যটন ব্যবসার উন্নয়ন ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতির মাধ্যমে ব্যবসার প্রসার তথা জনমানুষের কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পাবে। ফলে এটি বন্যার মত প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও কোভিড-১৯ পরবর্তী সময়ে অর্থনীতির সমৃদ্ধি ও স্থিতিশীলতাকে টেকসই করবে।


উক্ত প্রকল্পটি প্পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশীপ (পিপিপি) এর অধীনে সম্পন্ন হবে বলে জানা যায়। কিন্তু এখন পর্যন্ত প্রকল্পটির কোন অগ্রগতি দৃশ্যমান নয়। এ বিষয়ে বাস্তব অগ্রগতি কতদূর এবং কবে নাগাদ মহাসড়কের কাজ শুরু হবে?


জবাব :

See Reply

জনাব, 

অভিযোগের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ,

সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের চলতি ২০২০-২০২১ অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচী (এডিপি) তে বিষয়োল্লিখিত প্রকল্পটি পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশীপ (পিপিপি) প্রকল্প তালিকায় অন্তর্ভূক্ত আছে (ক্রমিক নং-৮)। তবে প্রকল্পটি পিপিপিতে বাস্তবায়নের জন্য মন্ত্রিপরিষদের অর্থনৈতিক বিষয়ক কমিটি (সিসিইএ) এর অনুমোদন লাভ করেনি। উল্লেখ্য, সিসিইএ তে অনুমোদনের জন্য প্রকল্পটির প্রাপ-সম্ভাব্যতা সমীক্ষা (Pre-Feasibility Study) সম্পন্ন করতে হবে। আলোচ্য প্রকল্পের প্রাপ-সম্ভাব্যতা সমীক্ষা করার জন্য পরামর্শক প্রতিষ্ঠান নিয়োগ প্রক্রিয়া চলমান আছে। পরামর্শক প্রতিষ্ঠান নিয়োগের পর প্রাক-সম্ভাব্যতা সমীক্ষা করা হবে। উক্ত সমীক্ষার মাধ্যমে আলোচ্য প্রকল্পটি পিপিপি প্রকল্প হিসাবে বাস্তবায়নযোগ্য কিনা তা যাচাই করা হবে। বাস্তবায়নযোগ্য হলে প্রকল্পটির প্রস্তাব সিসিইএ অনুমোদনের জন্য মন্ত্রিপরিষদে পেশ করা হবে।


9863. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : comilla
তারিখ ও সময় : 04 Nov, 2020 11:23:08
বর্ণনা :

i am assaing to my driving licence last year February month but still i ma not getting my Driving licence. can you please let when i will get it.


জবাব :

See Reply

ধন্যবাদ 

বিআরটিএ’র পর্যাপ্ত ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড না থাকায় ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড প্রিন্ট বন্ধ রয়েছে। ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড সংক্রান্ত টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। উল্লেখ্য যে বিআরটিএ’র সংশ্লিষ্ট অফিস থেকে প্রাপ্তি স্বীকার রশিদ (Acknowledgement Slip) এর মাধ্যমে যানবাহন চালাতে পারবেন। টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষে পুনঃরায় ড্রাইভিং লাইসেন্স স্মার্ট কার্ড প্রিন্ট শুরু হবে। সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখিত।

 

ধন্যবাদ। 


9857. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : মধ্যবাজা, সুনামগঞ্জ
তারিখ ও সময় : 28 Oct, 2020 01:24:59
বর্ণনা :

সিলেট-সুনামগঞ্জ মহাসড়কের (R-280) সিলেট অংশের অসমাপ্ত উন্নয়নকাজ শেষহবে কবে??? এই সড়কের সুনামগঞ্জ অংশের শান্তিগঞ্জবাজারে বাস বে নির্মাণকরার কথা থাকলেও সেটি করা হয়নি।শান্তিগঞ্জবাজারে বাস বে নির্মাণ করা হবে কিনা সবিনয়ে জানতে চাই ।        


জবাব :

See Reply

জনাব, 

অভিযোগ করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ,

সিলেট-সুনামগঞ্জ মহাসড়কের সিলেট অংশের অসমাপ্ত উন্নয়ন কাজ আগামী এপ্রিল/২০২১ এর মধ্যে সমাপ্ত হবে বলে আশা করা যায়। শান্তিগঞ্জ বাজারে বাস-বে নির্মাণের বিষয়ে জানানো যাচ্ছে যে, উক্ত কাজটি গত ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে বিধি মোতাবেক টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পাদন পূর্বক কার্যাদেশ প্রদান করা হলেও উক্ত সময়ে করোনা ভাইরাস (COVID-19) এর কারণে কাজটি শুরু করা সম্ভব হয়নি। উক্ত কাজটি বর্তমান ২০২০-২০২১ অর্থ বছরে সম্পাদনের লক্ষ্যে পিএমপি মাইনর এর আওতায় বরাদ্দ চেয়ে পত্র প্রেরণ করা হয়েছে। তাছাড়া উক্ত কাজের সময় বর্ধিত করণের জন্য ঠিকাদার কর্তৃক প্রদত্ত আবেদনের প্রেক্ষিতে অত্র দপ্তর হতে প্রেরণ করা হয়েছে, যা বর্তমানে মন্ত্রণালয়ে প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। উক্ত কাজের বিপরীতে বরাদ্দপ্রাপ্তি স্বাপেক্ষে এবং সময় বর্ধনের আবেদন অনুমোদিত হলে কাজটি যথাযথ প্রক্রিয়ায় সম্পন্ন করা হবে।


9856. প্রদানকারীর বিবরণ (নাম,ফোন ইত্যাদি) : মতামত প্রদানকারীর পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।
ক্ষতিগ্রস্থ স্হান, জেলা : Dhaka
তারিখ ও সময় : 26 Oct, 2020 14:00:35
বর্ণনা :
Dear Concern

 

as per government rules I applied in Mirpur BRTA for name transfer procedure on 03.02.2020. They gave me a date on 26.07.2020 for finger print but when I went there they put another date 25.12.2020.Its a huge time to issue a name transfer/ownership changes documents in this digital era. I am badly in need of this document.

 

Therefore I request you to consider my issue and speed up the procedure of name transfer of my vehicle as early as possible.

 

Best Regards

 

 

Odita Kabir  (owner/Applicant)

01684991118

aditakabir@yahoo.com

জবাব :

See Reply

Thanks for Your Query,

Due to COVID-19, BRTA service was closed for many days. So we need time to change your name in our system. We appology for our late.

As soon as possible we will try to solve your problem.